প্রশাসন

খাস জমিতে জালিয়াতি, সালানপুরে চলছে তদন্ত

কাজল মিত্র

হদলা মৌজায় খাস জমির উপর জালিয়াতি পাট্টার খবর প্রকাশিত হওয়ার পর নড়েচড়ে উঠলো বি. এল.আর.ও

– সালানপুর ব্লকের দেন্দুয়া গ্রাম পঞ্চায়েত অন্তর্গত স্থানীয় যুবকরা একত্রিত হয়ে ভূমি মাফিয়াদের বিরুদ্ধে সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে হদলা মৌজায় খাস জমির জাল পাট্টা ও জাল রায়াতির উপর আওয়াজ তুলে এই খবর বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার পর নড়েচড়ে বসেছে সালানপুর বি.এল.আর. ও অফিসার শুভদীপ টিকাদার।
মঙ্গলবার সকালে সালানপুর বি.এল.আর.ও অফিসার শুভদীপ টিকাদার নির্দেশ অনুসারে হদলা মৌজার লেফট ব্যাংক উচ্চ বিদ্যালয়ের পিছনে খাস জমি ও বন বিভাগের জমির পরিদর্শন করতে আসেন আর.আই ও সরকারি আমিন এবং লেফট ব্যাংক বিদ্যালয়ের পিছনে অবস্থিত খাস জমির ও বন বিভাগের জমির উপর জালিয়াতির তদন্ত করে রিপোর্ট তৈরি করেন।
খবর সূত্রে জানা যায় স্থানীয় যুবকের অভিযোগ পাওয়ার পর সরকারি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে এই জমির উপর তদন্ত শুরু করা হয়েছে।যানাযায় এই খাস জমির উপর কিছু সরকারি আধিকারিক ও জমি মাফিয়ার সহযোগিতায় কিছু ব্যাক্তি পাট্টা ও কিছু ব্যাক্তি জমির মালিকানা প্রাপ্ত করেছে,যা পুরোপুরি ভাবে জাল।যারা এই খাস জমির মালিকানা পেয়েছে তারা তো সালানপুর ব্লকের বাসিন্দা নয় তবে কি ভাবে তাদের
রায়াতির জমির মালিকানা তারা পেলো।
এই প্রসঙ্গে সালানপুর বি.এল.আর.ও অফিসার শুভদীপ টিকাদার জানান এই জমির উপর বিভিন্ন প্রকারের অভিযোগ পাওয়া গেছে,তারই পরিপ্রেক্ষিতে আজ ওই জমির পরিদর্শন করতে আর.আই ও সরকারি আমিন পাঠানো হয়,এই খাস জমিতে এখনো কোনো প্রকার বাড়ি ঘরের নির্মাণ হয়নি কিন্তু পাথর দিয়ে ঘেরাও করা রয়েছে।
জোর কদমে তদন্ত শুরু করা হয়েছে এই খাস জমির উপর যদি কোনো ব্যক্তি দোষী প্রমাণিত হয় তবে তার বিরুদ্ধে সরকারি আইন অনুযায়ী মামলা করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *