রাজনীতি

করোনা বিধি বজায় না রেখে সালানপুরে বিজেপির সভা

সালানপুরে বিজেপির সাংগঠনিক বৈঠকে মানা হলো না সামাজিক দূরত্ব

কাজল মিত্র

:- সামনে বিধানসভা নির্বাচন তারই পরিপ্রেক্ষিতে সংগঠনকে শক্তিশালী করতে সালানপুর ব্লকের দেন্দুয়া মোড় সংলগ্ন একটি বেসরকারি প্রেক্ষাগৃহে অনুষ্ঠিত করা বিজেপির সাংগঠনিক বৈঠক সভা।
যেই সাংগঠনিক বৈঠকে বিজেপি কর্মীদের পক্ষ থেকে মানা হলো না কোনো প্রকারের সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব।
বেশ কিছু কর্মীদের মুখে দেখতে পাওয়া গেলো না মাক্স।
যেখানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন করোনা ভাইরাস থেকে দেশকে সুরক্ষিত রাখতে,প্রতিটি মানুষকে মাক্স ও সামাজিক দূরত্ব
মেনে চলতে সেই জায়গায় বিজেপির বৈঠকে মানা হচ্ছে না কোনো নিয়মাবলী।
তাছাড়া প্রতিদিন সালানপুর ব্লকে হু হু করে করোনার প্রকোপ বেড়ে চলেছে ।
এই সাংগঠনিক বৈঠকে মুখ্য রূপে উপস্থিত ছিলেন আসানসোল এর নব নির্বাচিত পর্যবেক্ষক সৌরভ সিকদার তিনি প্রথমে ভারত মাতার প্রতি কৃতিতে মাল্যদান করেন এবং ডাক্তার শ্যামাপদ মুখার্জির ছবিতেও মাল্যদান করেন তারপর সাংগঠনিক সভার শুভ সূচনা হয়।
সাংবাদিক সম্মেলনের মধ্যে দিয়ে সৌরভ সিকদার বলেন, যে আসানসোলের মানুষ তৃণমূল কংগ্রেসের উপর ক্ষুদ্ব রয়েছে , সেখানে আগামী বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি আসানসোলের সাতটি বিধানসভার আসনে জয় লাভ করবে।তাছাড়া তিনি বলেন তৃণমূল কংগ্রেস এর কর্মী থেকে শুরু করে নেতৃত্ব সবাই চোর আর এই কথা সাধারণ মানুষ বুঝতে পেরেছে।সন্ত্রাস করে রাজনীতি করা যায় না।তাই আসানসোলের মানুষের আশীর্বাদ সর্বদাই বিজেপির সাথে রয়েছে।
তবে সাংবাদিক দের প্রশ্নে স্থানীয় মানুষের ক্ষোভ যে যেখানে বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতা থেকে শুরু করে সমাজকর্মী এই লকডাউনের সময় সাধারণ মানুষের পাশে এসে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে সেখানে এই করোনা মহামারীর প্রাক্কালে আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় কে একবারো দেখা গেল না কেন ?
এর উত্তরে তিনি জানান যে বাবুল এখন দিল্লিতে রয়েছে,লকডানের
সময় থেকে সেখানেই আটকে রয়েছে।প্লেন ও ট্রেন না চলার কারনে তিনি আসতে পারেনি তবে সর্বদাই তিনি কর্মীদের সাথে যোগাযোগ রেখেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *