হাইকোর্ট সংবাদ

রাম – কৃষ্ণ কে সম্মান জানাতে আইন চান এলাহাবাদ হাইকোর্টের বিচারপতি

 রাম- কৃষ্ণ কে সম্মান জানাতে আইন চান এলাহাবাদ হাইকোর্টের বিচারপতি 

খায়রুল আনাম

চলতি বছরের গত মাসে গরুর  ‘মৌলিক অধিকার’.  দাবি রেখে  সংসদে সরকারের বিল  আনার  সপক্ষে মত প্রকাশ করেছিলেন, গরুকে জাতীয় পশুর  তকমা দেওয়ার প্রস্তাবও দিয়েছিলেন এলাহাবাদ হাইকোর্টের বিচারপতি শেখর কুমার যাদব।তিনি গোহত্যায় অভিযুক্তের জামিনের আর্জি নাকচ করে ১২ পৃষ্ঠার রায়ে বলেছিলেন, -‘বিজ্ঞানীদের বিশ্বাস, একমাত্র গরুই অক্সিজেন নেয়, ছাড়ে! ‘এবার তাঁর দাবি,- রাম,  কৃষ্ণকে সম্মান জানাতে আইন চাই। ভগবান রাম, ভগবান কৃষ্ণ, রামায়ণ, তার রচনাকারী বাল্মিকী, গীতা, তার রচনাকারী মহর্ষ বেদব্যাসকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা  দিতে সংসদে আইন পাশ হোক। কারণ এঁরাই দেশের সংস্কৃতি, ঐতিহ্য। বিচারপতি সোস্যাল মিডিয়ায় হিন্দু দেবদেবীদের আপত্তিকর ছবি শেয়ার করায় অভিযুক্ত হাথরসের বাসিন্দা জনৈক আকাশ যাদবের জামিনের আবেদন মঞ্জুর করে এও বলেন, -‘সংবিধান কাউকে নাস্তিক হওয়ার অনুমতি দিয়েছে, কিন্তু তার মানে এই নয়,দেবদেবীদের সম্পর্কে আপত্তিকর, অশালীন মন্তব্য করা যায়’। গত ৪ জানুয়ারি গ্রেফতার হয়েছিলেন আকাশ। ‘ভারতীয় সংস্কৃতি সম্পর্কে শিশুদের উদ্বুদ্ধ করতে দেশের সব স্কুলে তা আবশ্যিক বিষয় করা হোক,’ জামিনের রায়ে বলেছেন বিচারপতি। আবেদনকারীর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ সম্পর্কে বিচারপতির মত, -‘দুনিয়ার অনেক দেশেই এমন আচরণে কঠোর সাজার বিধি আছে, সেই তুলনায় ভারতে সাজার মাত্রা বেশ লঘু’। ১২ পৃষ্ঠার রায়ে আদালতের অবস্থান ব্যাখ্যা করে বিচারপতি আরও বলেন, সম্প্রতি দেশের সর্বোচ্চ আদালত রামজন্মভূমি মামলার রায়ে ভগবান রামে আস্থাশীল ভক্তদের পক্ষেই রায় দিয়েছে। রাম ভারতের আত্মা, সংস্কৃতি, ভগরাম রাম ছাড়া ভারত অসম্পূর্ণ। পাশাপাশি আদালত বলেছে, যে দেশে থাকেন, তার দেবদেবী, সংস্কৃতির অপমান না করে বরং শ্রদ্ধা করা উচিত প্রত্যেকের।এখন দেখার এই বিচারপতির এই পর্যবেক্ষণ সংসদ ভবনে উঠে কিনা, কিংবা সুপ্রিম কোর্ট সহমত পোষণ করে কিনা?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *