প্রশাসন

স্বাধীনতা দিবস পালনে অনিহা মন্তেশ্বরের কুসুমগ্রাম

সেখ সামসুদ্দিন

লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত হয়েছে আমাদের স্বাধীনতা। বিপ্লবীদের অদম্য ইচ্ছা শেষ পর্যন্ত ১৯৪৭ সালের ১৫ ই আগস্ট স্বাধীনতা লাভ করে ভারত বর্ষ। ইংরেজ সরকারকে চিরতরে সরিয়ে দিয়ে সারা ভারতে উঠেছিল সেদিন তিরঙ্গা। সেই পতাকার সম্মান আমরা কতটা রাখি? সারা দেশ জুড়ে পালিত হচ্ছে ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন। করোনা আবহের মধ্যে জাকজমক পূর্ণ না হলেও প্রত্যেক সরকারি কিংবা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে বিভিন্ন সংগঠনের তরফ থেকে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে এই দিনকে মর্যাদার সঙ্গে স্মরণ করা হয়। কিন্তু কোন কোন জায়গায় জাতীয় পতাকার যেমন আমরা অসম্মান করে ফেলি। তেমনই অনেক জায়গায় মানুষের অজ্ঞতার অভাবে দেখা গেছে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের কোন বালাই নেই। সারা বাংলায় যখন জাতীয় পতাকা উত্তোলনে ব্যস্ত। ভিন্ন চিত্র দেখা গেল পূর্ব বর্ধমান জেলার মন্তেশ্বর ব্লকের কুসুমগ্রাম বাজারে।
ব্লকের একটি ব্যস্ততম এবং বড় বাজার। এই বাজারে আজ ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবসে বাজারে বাস স্ট‍্যান্ডে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের পতাকা উড়তে দেখা গেলেও, কোন দোকানে রাস্তার চৌমাথায় জাতীয় দেখা মিললো না। হাজারো বীর শহীদের রক্তের বিনিময়ে যে স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছিল। সত্যি কি তাদের আমরা ভুলতে বসেছি ? ভুলতে বসেছি কি ১৫ই আগস্ট গুরুত্ব ? আজকের কুসুম গ্রাম বাজার বাসস্ট্যান্ডের ঘটনা হয়তো এরই সাক্ষী বহন করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *