প্রশাসন

চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানায় উচ্চপর্যায়ের সভা

চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানার অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা মজবুত করার লক্ষ্যে এই সি আইএস এফ এর এজটি দলকে দায়িত্ব ভার প্রদান

কাজল মিত্র :- চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানার বিভিন্ন অংশে মাঝে মাঝেই আগুন লাগার ঘটনায় রীতিমতো আতঙ্কিত চিত্তরঞ্জন কারখানার প্রশাসনিক মহল আর তাই এই সমস্যা দূর করতে সি আইএস এফ নামক এক বিশেষ দল কে এই দায়িত্ব দেওয়া হল ।
জানা গেছে বিগত বছরের প্রায় চার থেকে পাঁচবার কারখানায় আগুন লাগার ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে ।যার মধ্যে কারখানার বিভিন্ন বিভাগ ছাড়াও আগুনের গ্রাসে পড়তে হয়েছে সংস্থার প্রধান প্রশাসনিক ভবনকেও। আর তাই দেশের এই অন্যতম বৃহৎ রেল ইঞ্জিন উৎপাদন সংস্থার অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা মজবুত করার লক্ষ্যে কাজে এই সি আইএস এফ দলকে কাজে লাগানো হবে।এ বিষয়ে চিত্তরঞ্জনের মহাপ্রবন্ধক ও উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের সঙ্গে সি আই এস এফের অফিসারেরা ২৩ সেপ্টেম্বর একটি আলােচনা শেষ করেছেন ।তাছাড়া ২৪ তারিখ থেকেই তারা কারখানার বিভিন্ন অংশে পর্যবেক্ষণ শুরু করে দিয়েছে ।এদিন সি আই এস এফের ডিসি ফায়ার জয়দীপ চৌধুরী সহ ভাস্কর দাস ,এম রহমান চিত্তরঞ্জন রেলের সেফটি অফিসার শংকর শর্মা এবং চারজন সেফটি ইন্সপেক্টর কারখানার ২৬ ,১৭,১৮,০৫,২৫ নম্বর বিভাগ পর্যবেক্ষণ করেন । তারা এক সপ্তাহ ধরে এই কারখানার বিভিন্ন শপে সপে গিয়ে যাবতীয় অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা খুঁটিয়ে দেখে বিস্তারিত রিপাের্ট জেনারেল ম্যানেজারের কাছে তুলে ধরবেন।তাছাড়া কারখানা মধ্যে থাকা আগুন নেভানাের যন্ত্রগুলি এখন কি অবস্থায় রয়েছে সেসব খতিয়ে দেখা হচ্ছে।কারখানা ও অফিসের যেসব জায়গাগুলিযে সবচেয়ে বেশি আগুন লাগার সম্ভাবনা রয়েছে সেইসকল জায়গা গুলিকে চিহ্নিত করে বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান ওই বিশেষ দল।
ইতিমধ্যেই তারা ফায়ার হাইড্রেন ব্যবস্থা খতিয়ে দেখেছেন ।ফায়ার সেফটি অডিট এর মাধ্যমে চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানাকে সম্পূর্ণভাবে আগুনের হাত থেকে মুক্ত রাখার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জানান চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানার মহাপ্রবন্ধক সতীশ কুমার কাশ্যপ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *