পুলিশ

যোগীর রাজ্যে মহিলা খেলোয়াড় কে ধর্ষণ করে খুন

যোগীর রাজ্যে মহিলা খেলোয়াড় কে ধর্ষণ করে খুন

এস.মন্ডল,
বিয়ের কথা ছিল নভেম্বর মাসে।আর হাতে ছিল মাস খানেক সময়।তবে বিয়ের ফুল আর ফুটলো না যোগীর রাজ্যে।প্রাক্তন জাতীয় স্তরের খো-খো খেলোয়াড়কে গলায় কাপড় পেঁচিয়ে খুন করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তাঁর পরিবারের তরফে ধর্ষণের অভিযোগ করা হয়েছে। উত্তরপ্রদেশের বিজনোর স্টেশনের কাছেই রেললাইনে গুরুতর আহত অবস্থায় পাওয়া যায় তাঁকে। এখান থেকে খেলোয়াড়টির বাড়ি মাত্র ৩০ মিটার দূরে কুটিয়া কলোনিতে। ঘটনাটি ঘটেছে নাজিয়াবাদ জংশন স্টেশনের খুব কাছেই। পুলিশি সুত্রে  প্রকাশ , একটি স্কুলে ফিজিক্যাল এডুকেশন শিক্ষিকার পোস্টের জন্য ওই খেলোয়াড় বায়োডাটা জমা দিতে গিয়েছিলেন। তবে রাত হয়ে গেলেও কেন বাড়ি ফেরেনি, সেই নিয়ে বাড়ির মানুষজন চিন্তা করছিলেন। ওই মহিলা নামী তারকাকে বহুবার ফোন করা হলেও সেটি সুইচড অফ শুনিয়েছে। কয়েক ঘণ্টা পর এক প্রতিবেশী মহিলা রেললাইনের স্লিপারের মধ্যে তাঁকে পড়ে থাকতে দেখেন। অর্ধ অচেতন অবস্থায় শ্বাস নিতে না পেরে হাঁসফাঁস করছিলেন তিনি। গলায় প্যাঁচানো ছিল একটা ওড়না। সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও শেষরক্ষা হয়নি। চিকিত্‍সকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এরপর দুর্ঘটনা স্থলে পৌঁছয় জিআরপি এবং আরপিএফ দল। মৃত খেলোয়াড়টির বোন জানিয়েছেন, নভেম্বরে বিয়ে হওয়ার কথা ছিল দিদির। এমন আকস্মিক দুর্ঘটনায় শোকে পাথর হয়ে গেছেন পরিবারের সদস্যেরা। বিজনোরের সার্কল অফিসার কুলদীপ সিং বলেছেন, তদন্ত শুরু হয়েছে এবং দেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। নাজিবাবাদ জিআরপি-র তরফে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। নাজিয়াবাদ স্টেশনের জিআরপিও সারভেজ খান জানিয়েছেন, -“ওই মহিলার মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট এলে তারপর দোষীদের খোঁজা শুরু হবে। দেখা হবে সিসিটিভি ক্যামেরা। এমনকি ওই মহিলা ক্রীড়াবিদের ফোনের কল রেকর্ডও পরীক্ষা করা হবে”। সম্প্রতি জাতীয় মহিলা কমিশনে নথিভুক্ত অভিযোগ অনুযায়ী শীর্ষে  রয়েছে উত্তরপ্রদেশ। বিশেষত নারী নির্যাতনের অভিযোগ নিয়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *