প্রশাসন

গুসকরায় ‘দুয়ারে সরকার’

গুসকরায় ‘দুয়ারে সরকার’

জ্যোতি প্রকাশ মুখার্জ্জী,

        আর পাঁচটা পরিকল্পনার মত মমতা ব্যানার্জ্জীর মস্তিষ্ক প্রসূত বা পিকে-র পরামর্শেই হোক - বিরোধীদের সমালোচনা সত্ত্বেও প্রথম 'দুয়ারে সরকার' এর চরম সাফল্যের জন্য রাজ্য সরকার  দ্বিতীয় বারের জন্য 'দুয়ারে সরকার' ক্যাম্পের আয়োজন করে। সিদ্ধান্ত হয় ১৬ ই আগষ্ট থেকে এই ক্যাম্প শুরু হবে এবং একমাস ব্যাপী চলবে। লক্ষ্য সরকারি প্রকল্পের সুবিধা মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া। সারা রাজ্যের সঙ্গে সাযুজ্য রেখে গুসকরা পৌরসভাতেও শুরু হয়েছে ক্যাম্প।
         ১৭ ই আগষ্ট গুসকরা পৌরসভার উদ্যোগে দুটি ক্যাম্প হয়। একটি ক্যাম্প হয় ৩ নং ওয়ার্ডের উত্তর পাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এবং অপরটি ৪ নং ওয়ার্ডের বাগানপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। দুটি ক্যাম্পেই সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের মানুষের উৎসাহ দেখা যায় প্রচুর। সরকারি প্রকল্পের সুযোগ নেওয়ার জন্য মানুষরা ক্যাম্পের সামনে ভিড় করে । সরকারি আধিকারিকদের অনুমান প্রথম ক্যাম্পে যেমন স্বাস্থ্যসাথী কার্ড তৈরি করার জন্য ভিড় হয় এবার 'লক্ষীর ভাণ্ডার' প্রকল্পের সুযোগ নেওয়ার জন্য ভিড় হবে বেশি।
    ক্যাম্পের পরিস্থিতি দেখতে দুটি ওয়ার্ডেই হাজির ছিলেন পৌর প্রশাসক মণ্ডলীর অন্যতম সদস্য  কুশল মুখার্জী  এবং পৌরসভার বড়বাবু মধুসূদন পাল। এছাড়া  মানুষের পাশে থেকে সব রকমের সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে তৃণমূল কর্মী গণেশ পাঁজা, পার্থ হাজরা, শ্রীকান্ত সিনহা, মলয় চৌধুরী, যমুনা শিকারি, চুমকি দাস, বাবু সেখ প্রমুখ।
           কুশল বাবু বললেন - ক্যাম্প দুটির পরিস্থিতি সরজমিনে দেখতে বড় বাবুকে সঙ্গে নিয়ে গেছি। আমাদের লক্ষ্য ভারপ্রাপ্ত আধিকারিকদের এবং সাধারণ মানুষের কোনো অসুবিধা হচ্ছে কিনা খোঁজ নেওয়া। তৃণমূল কংগ্রেস শহর সভাপতি হিসাবে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের কর্মীদের মানুষের পাশে থাকার পরামর্শ দিয়েছি এবং কোনো মানুষ যাতে সরকারি  প্রকল্পের সুযোগ থেকে বঞ্চিত না হয়  সেই বিষয়ে সতর্ক থাকতে বলেছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *