রাজনীতি

সালানপুরে বিধায়ক কে আদিবাসী সমাজের সংবর্ধনা

সালানপুর ব্লক ঘাটওয়াল আদিবাসী সমাজের পক্ষ থেকে বিধায়ক মহাশয় কে সংবর্ধনা

কাজল মিত্র :-সালানপুর ব্লকের ঘাঁটওয়াল আদিবাসী সমাজের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হল তৃতীয় বারের জয়ী বিধায়ক বিধান উপাধ্যায় এর সংবর্ধনার অনুষ্ঠান। বুধবার সকালে রূপনারায়ানপুর নান্দনিক প্রেক্ষাগৃহের মধ্যেই এই অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয় যেখানে ঘাটওয়াল সমাজের মহিলারা ও সমাজের সদস্যরা মিলিত ভাবে বারাবনির বিধায়ক বিধান উপাধ্যায় মহাশয় কে সুসজ্জিত পুষ্পস্তবক ও ফুলের মালা পরিয়ে সংবর্ধনা প্রদান ক্রেনম

এছাড়া এই অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়েই বিশেষ বিশেষ অতিথিদেরও পুষ্পস্তবক দিয়ে সংবর্ধনা দেওয়া হয় ।
এদিন বারাবনির বিধায়ক বিধান উপাধ্যায় ঘাটওয়াল আদিবাসী সমাজের কার্যকর্তা সহ সালানপুর ব্লকের মানুষকে অশেষ ধন্যবাদ দিয়ে
জানান যে বারাবনি বিধানসভায় তাকে তৃতীয় বারের জন্য বিধায়ক করেছে এতে সকলের ভালবাসা ও আশীর্বাদ রয়েছে।তিনি সকলের ঘরের ছেলের মতো থাকতে ভালবাসেন কোন নেতা মন্ত্রী হয়ে নয় তিনি বলেন যে এবারে সকলের আশীর্বাদ পেয়ে তিনবারের বিধায়ক হয়েছেন শুধুমাত্র আপনাদের ভালোবাসা পেয়ে আপনাদের পাশে সবসময় রয়েছি তাই সুখের সময় পাশে নাপেলেও যেকোন দুঃখের সময় ঠিক আমাকে কিংবা আমার হাত আপনার কাছে পৌঁছে যাবে।এই জয় আপনাদের জয় আমাদের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেভাবে মানুষের পাশে থেকে কাজ করে সেভাবেই আমাদের সকল তৃণমূলের কর্মীরাও সকলের পাশে থেকে কাজ করে থাকি।তাছাড়া তিনি বলেন বিধানসভা ভোটের পূর্বে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর দুয়ারে সরকারে যেভাবে মানুষের পাশে থেকে সামান্য কদিনের মধ্যে কাজ করেছে তাতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকেও ধন্যবাদ প্রদান করি।তবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি যে কথা দেয় তা কথা রাখেন ।
সেই ভাবে পুনরায় ১৬ তারিখ থেকে আবার দুয়ারে সরকার প্রকল্প চালু হবে সেখানে লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পটি বাড়ির মহিলারা এপ্লাই করতে পারেন ।এই প্রকল্প থেকে এস সি এসটি বাড়ির মা বোনেরা ১০০০ টাকা ও সাধারণ পরিবারের মা বোনেরা ৫০০ টাকা করে নিজেদের একাউন্টে পাবেন ।
তাছাড়া এই দুয়ারে সরকার থেকে অন্যান্য প্রকল্পের সুবিধার নাম নথিভুক্ত করাতে পারবেন ।

সালানপুর ব্লকের আদিবাসী ঘাটোয়াল সমাজের পক্ষ থেকে ঘাটওয়াল সমাজের সভাপতি সহদেব রায় বলেন,
আমাদের ঘাটওয়াল আদিবাসী সমাজের পক্ষ আজ বিধায়ক মহাশয় কে সংবর্ধনা করা হল।তাছাড়া আমাদের ঘাটওয়াল সমাজ এস সি এসটি থেকে প্রায় ৭১ সাল থেকে বঞ্চিত রয়েছে ।১৯৫০ সালের ২৬ সে জানুয়ারি থেকে আমাদের জাতিকে বঞ্চিত রাখা হয়েছে সে বিষয়ে আজ বিধায়ক মহাশয় কে পূর্বে লিখিত স্বারক লিপি প্রধান করা হয়েছিল আজকে পুনরায় বিধায়ক মহাশয়কে জানানো হলে ।বিধায়ক মহাশয় আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন তিনি সর্বদা আমাদের পাশে রয়েছেন এবং আমাদের যে জাতি সংসাপত্রের সমস্যা রয়েছে সেটিকে সমাধান করবেন ।

এদিন এই অনুষ্ঠানে বারাবনির বিধায়ক বিধান উপাধ্যায় মহাশয় এর সাথে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিম বর্ধমান জেলা পরিষদের কর্মাধক্ষ্য তথা সালানপুর ব্লক তৃণমূলের সভাপতি মহম্মদ আরমান,সালানপুর ব্লক তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক ভোলা সিং, সালানপুর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি ফাল্গুনী ঘাসি,সহ সভাপতি বিদুৎ মিশ্র, রূপনারায়ানপুর প্রধান রানু রায় সহ আদিবাসী ঘাটওয়াল সমাজের পক্ষ থেকে সভাপতি সহদেব রায়,
সম্পাদক শিবু রায়,কোষাধক্ষ শংকর রায়, ডমন রায় রঞ্জিত রায়, বিষম রায়,ডক্টর সত্য নারায়ণ রায় এস এন
সুকদেব রায় ,সহ আরো অনেকে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *