ক্রীড়া সংস্কৃতি

যোগসাধনা করলে মানসিক চাপমুক্ত জীবন

সুবল সাহা,

যোগসাধনার মাধ্যমে মানসিক চাপমুক্ত জীবনযাপন সম্ভব (যোগিক আধ্যাত্মিক অনুশীলন) – চেয়ারপার্সন শ্রী রামরাজে নায়েক নিম্বলকর

যোগাসন এবং ধ্যান-ই হল মানুষকে সংযুক্ত করার সর্বোত্তম উপায় – হিমালয়ের ঋষি শ্রী শিব কৃপানন্দ স্বামী

করোনা মহামারীর এমন একটি বিশ্বব্যাপী দুর্দশার সময়ে, যখন সমস্ত মানুষ তাদের অস্তিত্বের জন্য লড়াই করছে, আমাদের প্রতেকের উচিত ধ্যান সাধনার মাধ্যামে মানসিক চাপ মুক্ত জীবন যাপন করা। ধ্যান সাধনা, আধ্যাত্মিকতা ভারতীয় ঐতিহ্যের অন্তর্নিহিত অঙ্গ। চেয়ারপার্সন শ্রী রামরাজে নায়েক নিম্বলকর বলেন, মানসিক চাপ মুক্ত জীবন যাপন সম্ভব শুধু ধ্যান সাধনার মাধ্যমেই। বিধানসভায় ভাষণ দেওয়ার সময় তিনি বলেন – আপনাদের শারীরিক ও মানসিক সুস্থতার পথ হিসেবে আধ্যাত্মিক অনুশীলনের পথ বেছে নিতে হবে। তিনি করোনা মহামারীর কবলে যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের জন্য সহনাভুতি প্রকাশ করেন।
বিধানসভার ভি.এস.পেজি সংসদীয় প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, মহারাষ্ট্র বিধানসভার সচিবালয় অফিসার্স অ্যান্ড এমপ্লয়িজ ট্রেনিং সেন্টার এবং শ্রী শিব কৃপানন্দ স্বামী ফাউন্ডেশনের যৌথ প্রচেষ্টায়, শ্রী শিব কৃপানন্দ স্বামীর উপস্থিতিতে হিমালয় ধ্যান শিবিরের আয়োজন করা হয়। এই কর্মসূচিতে বিধানসভার ভাইস-চেয়ারপার্সন ডঃ নীলম গোর, বিধানসভার সম্মানিত সদস্য এবং প্রধান সচিব রাজেন্দ্র ভাগবত এবং অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারী গণ উপস্থিত ছিলেন।
পরম পূজ্য শ্রী শিব কৃপানন্দ স্বামী তাঁর ভাষণে বলেন, জাতীয় নেতাদের সামাজিক কল্যাণের পাশাপাশি ব্যক্তিগত কল্যাণের দিকেও নজর দিতে হবে। নিজের আত্মকল্যাণ কথা মাথায় রেখে, আপনাদের প্রতিদিন ন্যূনতম 30 মিনিটের জন্য ধ্যান করতে হবে। একটি কার্য পরিকল্পনা করুন এবং এটিকে সমাপ্তির পথে নিয়ে যান। নিঃস্বার্থ ভাবে কাজ করুন যাতে আপনি আত্ম-সন্তুষ্টি লাভ পারেন। যোগ এবং ধ্যান মানুষের সাথে মানুষকে সংযুক্ত করার দুর্দান্ত উপায়। যোগ সাধনার মাধ্যমে মানুষে মানুষে ভেদ ভাব হ্রাস পায়। শ্রী শিব কৃপানন্দ স্বামী আরও বলেন যে ধ্যান করার সময় আমরা অন্তর্মুখী হই এবং আমাদের সহজাত আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি পায়।

জাতীয় নেতাদের সামাজিক কল্যাণের পাশাপাশি আত্ম-কাল্যান সম্পর্কেও ভাবতে হবে – হিমালয়ের ঋষি শ্রী শিব কৃপানন্দ স্বামী
হিমালয়ান মেডিটেশন অনুষ্ঠান মহারাষ্ট্র বিধানসভার সদস্যদের জন্য সফলভাবে আয়োজিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *