পুলিশ

বীরভূমে প্রাক্তন সেনার দলবলের সাথে পুলিশের লড়াই, গ্রেপ্তার ২২

খায়রুল আনাম

রামপুরহাট মহকুমা পুলিশকে দীর্ঘ সময় ধরে লড়াই করতে হলো এক অবসরপ্রাপ্ত সেনা জওয়ানের সাথে। রামপুরহাট মহকুমার নলহাটির খাঁপুর গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত সেনা জওয়ান সওকত আলির সঙ্গে প্রতিবেশী গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্যা নাজিরা বিবি ও তাঁর স্বামী আজিজুর রহমানের সাথে দীর্ঘদিন ধরেই একটি জায়গা নিয়ে পারিবারিক বিবাদ রয়েছে। আর তারই জেরে ওই অবসরপ্রাপ্ত সেনা জওয়ান নাজিরা বিবি ও তাঁর স্বামীকে মারধর করেন বলে অভিযোগ। খবর পেয়ে স্থানীয় পুলিশ তাঁদের উদ্ধার করে আনতে গেলে সওকত আলি বেশকিছু লোকজন জুটিয়ে পুলিশের উপরে আক্রমণ চালায়। পুলিশের উপরে তীর, বোমা ও ইট নিয়ে আক্রমণ করা হয়। যাতে পিছু হটে পুলিশ। পরে রামপুরহাট মহকুমা পুলিশ আধিকারিক বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে ঘটনাস্থলে গেলে তাঁদের উপরেও আক্রমণ চালানো হয়। নজিরবিহীনভাবে দীর্ঘ আড়াই ঘন্টা ধরে সওকত বাহিনীর সঙ্গে লড়াই চলে পুলিশের। পরে পুলিশ কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটিয়ে পরিস্থিতি নিজেদের অনুকূলে আনতে সমর্থ হয়। ঘটনায় আহত আট পুলিশ কর্মীকে নিয়ে গিয়ে ভর্তি করা হয়েছে রামপুরহাট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। পুলিশ সওকত আলি-সহ গ্রেফতার করেছে ২২ জনকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *