হাইকোর্ট সংবাদ

পিএসি মামলায় স্পিকার কে দুদিনের ‘সময়’ হলফনামা পেশে

পিএসি মামলায় স্পিকার কে দুদিনের ‘সময়’ হলফনামা পেশে

মোল্লা জসিমউদ্দিন টিপু,

 
বিধানসভার স্পিকারের পক্ষে রাজ্যের এডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত কলকাতা হাইকোর্টের কাছে হলফনামা পেশে চেয়েছিলেন দু সপ্তাহের সময়সীমা। তবে কলকাতা হাইকোর্ট এই সময়সীমা কমিয়ে দুদিন সময় বেঁধে দিলো স্পিকার কে হলফনামা পেশে।এতে রাজ্য চাপে পড়ে গেল বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। মঙ্গলবার দুপুরে কলকাতা হাইকোর্টের ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্ডাল এবং বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চে উঠে রাজ্য বিধানসভার পাবলিক একাউন্ট কমিটির চেয়ারম্যান পদে মুকুল রায় কে নিয়োগ সংক্রান্ত মামলা।এই জনস্বার্থ মামলাটি দাখিল করেছেন নদীয়ার কল্যাণীর বিজেপি বিধায়ক অম্বিকা রায়। নিয়ম না মেনে পিএসি চেয়ারম্যান পদে মুকুল রায় কে বসানো হয়েছে বলে দাবি করে এই মামলাটি দাখিল করেছেন এই গেরুয়া বিধায়ক। এদিন শুনানি পর্বে বিধানসভার স্পিকারের পক্ষে রাজ্যের এডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত জানিয়েছেন – ‘ পিএসির চেয়ারম্যান  নিয়োগ নিয়ে আরও কিছু বলার আছে।বিস্তারিত জানাতে দু সপ্তাহের সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হোক।’ তবে কলকাতা হাইকোর্টের ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্ডালের ডিভিশন বেঞ্চ রাজ্যের এই আর্জি খারিজ করে থাকে। পাশাপাশি ১২ আগস্টের মধ্যে বিধানসভার স্পিকার কে পিএসি চেয়ারম্যান নিয়োগে হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। ওইদিনই এই মামলার পরবর্তী শুনানি রয়েছে। এদিকে বিজেপির পক্ষে আইনজীবী কে এস নরসিংহ জানান – ‘ সাংসদীয় ব্যবস্থায় এই ধরনের ক্ষমতা স্পিকার প্রয়োগ করতে পারে কিনা, তা খতিয়ে দেখার প্রয়োজন আছে।এটি খুবই গুরত্বপূর্ণ  ‘। পাশাপাশি তিনি বুধবার অর্থাৎ আজই এই মামলার শুনানি চেয়েছিলেন জনস্বার্থ বিষয় এখানে রয়েছে  দাবি রেখে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য,  সাধারণত বিধানসভায় বিরোধী দলের কেউ পিএসসি চেয়ারম্যান পদে আসীন হন।বিধানসভার ফলপ্রকাশের পরে একদা বিজেপি বিধায়ক মুকুল রায় তাঁর পুরাতন দল তৃণমূলে ফিরে আসেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *