রাজনীতি

গুসকরা তৃণমূলের রক্তদান শিবির

গুসকরায় ত‍ৃণমূলের রক্তদান শিবির

জ্যোতি প্রকাশ মুখার্জ্জী

        করোনা জনিত নিষেধাজ্ঞা ও খানিকটা আতঙ্কের কারণে নিয়মিত রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা সম্ভব হচ্ছেনা। এরফলে বিভিন্ন ব্লাড ব্যাংকে মুমূর্ষু রুগীদের জন্য প্রয়োজনীয় রক্তের অভাব দেখা যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে রক্তের চাহিদা মেটাতে এগিয়ে এল গুসকরা  পুরসভার ১৩ নং ওয়ার্ড তৃণমূল কংগ্রেস কমিটি।
        ৯ ই আগষ্ট গুসকরা ১৩ নং ওয়ার্ড তৃণমূল কংগ্রেস কমিটির উদ্যোগে এবং গুসকরা শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সক্রিয় সহযোগিতায় সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের একটি বেসরকারি লজে রক্তদান শিবির আয়োজিত হয়। বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংক শাখা এই শিবির থেকে ৫০ এর অধিক ইউনিট রক্ত সংগ্রহ করে। আরও অনেক উৎসাহদাতা রক্তদানের জন্য  উপস্থিত থাকলেও নিষেধাজ্ঞা জনিত কারণে সেটা সম্ভব হয়নি। রক্তদাতাদের মধ্যে প্রায় ২০ জন মহিলা ছিলেন। উদ্যোক্তাদের পক্ষ থেকে প্রতিটি রক্তদাতাকে একটি করে চারাগাছ দেওয়া হয়। সংগৃহীত রক্ত ব্লাড ব্যাংক কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেওয়া হয়। এর আগে প্রয়োজনের তাগিদে অল্প সময়ের মধ্যে গুসকরা শহরের বুকে তৃণমূলের পক্ষ থেকে একাধিক রক্তদান শিবির আয়োজিত হয়। স্বাভাবিক কারণেই উদ্যোক্তাদের পক্ষ থেকে আয়োজিত এই শিবিরের সাফল্য নিয়ে অনেকের মনে সংশয় থাকলেও আগ্রহী রক্তদাতাদের উপস্থিতি দেখে সকলেই বিষ্মিত হন।
        রক্তদাতাদের উৎসাহ দেওয়ার জন্য শিবিরে উপস্থিত  ছিলেন প্রশান্ত গোস্বামী, দেবাঙ্কুর চ্যাটার্জ্জী, দেবব্রত শ্যাম, গণেশ পাঁজা, মলয় চৌধুরী, পার্থ হাজরা, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ বিশ্বজিৎ রক্ষিত, কিসমত সাউ, আইটি সেলের রবিনাথ আঁকুড়ে, ১৩ নং ওয়ার্ড সভাপতি মুন্না সাউ ও অন্যান্য তৃণমূল কর্মী সহ গুসকরা শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি কুশল মুখার্জ্জী।  
      শিবিরটিকে সফল করতে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য মুন্না সাউ শহর সভাপতি কুশল মুখার্জ্জী সহ শহরের সমস্ত স্তরের তৃণমূল নেতা-কর্মীদের ধন্যবাদ জানান। 
         বর্তমান পরিস্থিতিতে এই রক্তদান শিবিরের আয়োজন করার জন্য কুশল বাবু উদ্যোক্তাদের ধন্যবাদ জানান এবং ভবিষ্যতেও সমস্ত রকম সহযোগিতার আশ্বাস দেন। পরে তিনি বলেন - গুসকরার প্রতিটি ওয়ার্ডের তৃণমূল কর্মীরা সদা-সর্বদা মানুষের পাশে থাকে। কোনো মুমূর্ষু রুগী যাতে রক্তের সমস্যায় না পড়ে তার জন্য আমরা সতর্ক আছি। আমাদের বিধায়ক অভেদানন্দ থাণ্ডার প্রতিটি ক্ষেত্রে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য আমাদের কাজ করতেও সুবিধা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *