হাইকোর্ট সংবাদ

ধানবাদে বিচারক মৃত্যুর ঘটনায় সিবিআই কে তোপ সুপ্রিম কোর্টের

ধানবাদে বিচারক মৃত্যুর ঘটনায় সিবিআই কে তোপ সুপ্রিম কোর্টের 

মোল্লা জসিমউদ্দিন টিপু
ঝাড়খন্ডের ধানবাদে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা বিচারক উত্তম আনন্দের (৪৯) মৃত্যুর ঘটনায় গোয়েন্দা সংস্থাদের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করলো সুপ্রিম কোর্ট। শুক্রবার ধানবাদের এই বিচারক মৃত্যুর ঘটনায় স্বতঃস্ফূর্ত মামলায় শুনানি ছিল সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি এন ভি রামান্নার এজলাসে। এদিন সুপ্রিম কোর্টের পর্যবেক্ষণ – ‘ নিম্ন আদালতের বিচারকেরা হুমকি ও ভয় দেখানোর অভিযোগ করলে সিবিআই, আইবি সহ অন্যান্য গোয়েন্দা সংস্থারা সাড়া দেয়না’। সম্প্রতি বিহারের ধানবাদে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা বিচারক উত্তম আনন্দ সকাল ৫ টার সময় প্রাতভ্রমণ করতে গিয়ে এক অটোর ধাক্কায় মারা যান।প্রথমে মনে করা হচ্ছিল অটো টি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ধাক্কা মেরেছে। তবে বিচারকের পরিবার এটি কে নিছক দুর্ঘটনা মানতে নারাজ। সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায় – ঘাতক অটোটি গতিমুখ পরিবর্তন করে বিচারক কে পেছন দিয়ে ধাক্কা মেরে যায়।নিহত বিচারকের এজলাসে এক  মাফিয়া খুনের মামলা চলছিল।দুজন গ্যাংস্টারের জামিন খারিজ করে দিয়েছিলেন তিনি।এছাড়া আরও বেশ কয়েক টি হাইপ্রোফাইল মামলা চলছিল।এই বিচারকের মৃত্যুর পরের দিকে পুলিশ এফআইআর রুজু করতে দেরি করে। যা নিয়ে সন্দেহ তৈরি হয়।শুক্রবার সুপ্রিম কোর্ট সিবিআই এর উপর তোপ দাগে।সিবিআই তাদের মানসিকতার পরিবর্তন ঘটায়নি বলে পর্যবেক্ষণে জানায় আদালত। এও জানায় আদালত – ‘ হাইপ্রোফাইল লোকজনের অনুকূলে রায় না গেলেই বিচারব্যবস্থা কে কালিমালিপ্ত করার নুতন প্রবণতা দেখা যাচ্ছে’। সিবিআই কে নোটিশ দিয়েছে আদালত। সেইসাথে বিচারকদের উপর হুমকির জেরে রাজ্য গুলি কে স্টাটাস রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে। নিম্ন আদালতের বিচারকদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা কেমন তার বিশদ বিবরণ দিতে হবে। এই মামলার পরবর্তী শুনানি রয়েছে আগামী ৯ আগস্ট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *