প্রশাসন

বালিমাফিয়াদের দৌরাত্ম্যে জলসংকটে কুলটি?

নিজস্ব সংবাদদাতা, আসানসোল,

: বালি মাফিয়াদের দৌরাত্ম্যে আগামী দিনে চরম পাণীয় জলের সংকটে পড়তে চলেছে শিল্পাঞ্চলবাসী। দামোদর নদীর উপর ইট, পাথর ফেলে তৈরী করা হয়েছে অস্থায়ী সেতু ফলে নদীর স্রোত বাধা পেয়ে ধীরে ধীরে বাঁকুড়ার দিকে সরে যাচ্ছে দামোদর নদী। শিল্পাঞ্চলবাসীদের পাণীয় জলের উৎস দামোদর নদীর জল, দামোদর নদীর তীরবর্ত্তী এলাকায় পাম্প বসিয়ে জল তুলে সরবরাহ করা হয় শিল্পাঞ্চলে। এলাকার বালি মাফিয়ারা বালি তোলার সুবিধার্থে নদীর উপর ইট পাথর ফেলে তীরবর্ত্তী এলাকা ভরাট করে ধীরে ধীরে নদীর মাঝখান পর্যন্ত চলে গেছে। বছর আট আগে জলের স্রোত দূরে চলে যাওয়াতে জলের সংকটে পড়তে হয়েছিল শিল্পাঞ্চল বাসীকে পরবর্ত্তী সময়ে জলের পাইপ এবং পাম্প নদীর তীর থেকে প্রায় ৬০ ফুট দূরে পাম্প বসিয়ে জলের সংকট দূর করার চেষ্টা করা হয়েছিল। বর্তমানে বালি মাফিয়ারা বালি তোলার জন্য নদীর মাঝ বরাবর ভরাট করতে শুরু করেছে। ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায় বিভিন্ন জায়গায় বালি স্তুপিকৃত করা রয়েছে, বস্তা ভর্তি বালি যত্রতত্র ছড়িয়ে রয়েছে, নদী ইট পাথর ফেলে ভরাট করা রয়েছে। কুলটি বিধানসভার প্রাক্তন বিধায়ক উজ্জ্বল চ্যাটার্জী জানান প্রকৃতির বিরুদ্ধে কাজ আইন বিরুদ্ধ, যারা এইভাবে কাজ করে নদীর গতিপথ পরিবর্তন করতে চাইছে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। মূখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী স্পষ্ট ভাষায় জানিয়েছেন অবৈধভাবে কয়লা ও বালি তোলার ব্যাপারে দলের কর্মী জড়িত থাকলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নিতে। বর্তমান বিধায়কের বক্তব্য নদীর গতিপথ সরে যাওয়াতে কুলটি বাসীদের পাণীয় জলের সংযোগ দেওয়া যাচ্ছে না। বালি তোলার জন্য গতিপথ পরিবর্তন করা অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *