হাইকোর্ট সংবাদ

গুজরাট হাসপাতালে জীবন্ত দগ্ধ ঘটনায় অগ্নিসুরক্ষার অডিট রিপোর্ট তলব সুপ্রিম কোর্টের

গুজরাটে হাসপাতালে জীবন্ত দগ্ধ ঘটনায় অগ্নিসুরক্ষার অডিট তলব সুপ্রিম কোর্টের 

মোল্লা জসিমউদ্দিন ,
সোমবার দুপুরে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় এর এজলাসে উঠে গুজরাটের করোনা হাসপাতালে অগ্নিদগ্ধ হওয়ার মামলা। এই মামলায় গুজরাটের রাজ্য সরকার কে তীব্র ভৎসনা করেছে সুপ্রিম কোর্ট। পাশাপাশি রাজ্যের হলফনামা সহ অগ্নিসুরক্ষা নিয়ে ২০২০ সালের অডিট রিপোর্ট তলব করেছে দেশের সর্বোচ্চ আদালত। ‘এভাবেই রোগীরা জ্বলে পুড়ে মরবে’? ঠিক এভাবেই গুজরাটের রাজ্য সরকার কে তীব্র ভৎসনা করে থাকে সুপ্রিম কোর্ট। ‘হাসপাতালে অগ্নিকান্ডের একাধিক উদাহরণ থাকা সত্বেও করোনা হাসপাতালে অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা নিয়ে রাজ্য সরকার তাদের নির্দেশিকার মাধ্যমে রোগী নিরাপত্তায় গাফিলতি করেছে। যে নির্দেশিকা রাজ্য সরকার লাগু করেছে তা হাসপাতাল গুলিকে আরও সময় দিল।যতদিন ওরা পদক্ষেপ গ্রহণ করবেনা। ততদিন এভাবেই রোগীরা জ্বলে পুড়ে মরবে’।আদালতের এহেন পর্যবেক্ষণের পাশাপাশি বিচারপতি জানিয়েছেন এজলাসে – ‘ আমরা যখন কোন নির্দেশ দিই,তার উপর প্রশাসনের কোন নির্দেশিকা চাপানো যায়না।নাসিকে একজন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন। পরেরদিন বাড়ি ফিরতেন। দুজন নার্স শৌচাগারে ছিলেন। হাসপাতালের অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থার গাফিলতির কারনে তারা জীবন্ত দগ্ধ হয়ে মারা গেলেন।হাসপাতাল গুলি এখন যেন বড় রিয়েল এস্টেট তে পরিণত হয়েছে’।এইরকম ভৎসনা গুজরাট সরকার কে করে থাকে সুপ্রিম কোর্ট। পাশাপাশি রাজ্যের হলফনামা সহ ২০২০ সালের অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা নিয়ে অডিট রিপোর্ট তলব করেছে দেশের সর্বোচ্চ আদালত। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *