হাইকোর্ট সংবাদ

আরও দুটি বিধানসভা ভোটে পুন গননা চেয়ে মামলা তৃণমূল -বিজেপির

বনগাঁ দক্ষিণ ও বৈষ্ণবনগর কেন্দ্রের তথ্য সংরক্ষণের নির্দেশ 

মোল্লা জসিমউদ্দিন টিপু
রাজ্যবাসী যেন ফের ভোটের ফলাফলের দিকে তাকিয়ে। যেভাবে তৃণমূল ও বিজেপি প্রার্থীরা পুন গননা চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দারস্থ হচ্ছেন। তাতে ফের বাংলায় বিধানসভার ফলাফল নিয়ে তীব্র চাপানউতোর তৈরি হয়েছে।রাজ্যের ২৯৪ টি বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে ২৯২ টি ভোটপর্ব হয়েছে। শুধু জঙ্গিপুর এবং সামসেরগঞ্জে প্রার্থীদের হঠাৎ মৃত্যু স্থগিত রেখেছিল ওই দুটি কেন্দ্রের নির্বাচন।ইতিমধ্যেই কলকাতা হাইকোর্টে ১৫ টি বিধানসভা কেন্দ্রের পুন গননা চেয়ে দাখিল হয়েছে মামলা। আদালত এইসব মামলা গ্রহণ করে ভোট সংক্রান্ত যাবতীয় নথিপত্র সংরক্ষণ করার নির্দেশও দিয়েছে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে। মানিকতলা, বলরামপুর, নন্দীগ্রাম প্রভৃতি আসন গুলি এখন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে।ইতিমধ্যেই হাইভোল্টেজ আসন নন্দীগ্রাম বিধানসভার পুন গননা মামলায় বিচারপতি শম্পা সরকার এই কেন্দ্রের ভোট গননার দিন যাবতীয় ভিডিওগ্রাফি সহ তথ্য গুলি সংরক্ষণ করার জন্য মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক কে নির্দেশ দিয়েছেন। সুপ্রিম কোর্টে আবার এই মামলাটি অন্য রাজ্যের হাইকোর্টে বদলের আবেদন করে রেখেছেন বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী। ঠিক এইরকম পরিস্থিতিতে গত শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি বিবেক চৌধুরীর এজলাসে উঠেছিল বনগাঁ দক্ষিণ কেন্দ্রের পরাজিত তৃণমূল প্রার্থী আলোরানী সরকারের দায়ের করা মামলা টি।সেখানে বিচারপতি ওই কেন্দ্রের যাবতীয় কাগজপত্র সংরক্ষণ করার নির্দেশ দিয়েছেন। আবার গত শুক্রবারই কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অমৃতা সিনহার এজলাসে উঠে বৈষ্ণবনগর আসনে পরাজিত বিজেপি প্রার্থীর পুন গননা চেয়ে মামলা। এখানেও বিচারপতি সমস্ত তথ্য সংরক্ষণের নির্দেশ দেন।পাশাপাশি পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া অবধি একটি তথ্যও যেন নষ্ট না হয়।তার ব্যবস্থা করতে হবে বলে জানিয়েছেন আদেশনামায়। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *