হাইকোর্ট সংবাদ

নন্দীগ্রাম মামলায় এবার ‘হাইকোর্ট’ বদলের আবেদন সুপ্রিম কোর্টে

নন্দীগ্রাম মামলায় এবার ‘হাইকোর্ট’ বদলের আবেদন সুপ্রিম কোর্টে  

মোল্লা জসিমউদ্দিন
আগে চলছিল কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি বদলের আবেদন,  এবার খোদ ‘কলকাতা হাইকোর্টে’র বদল চাইলেন বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী। তিনি এই কলকাতা হাইকোর্ট বদলের পিটিশন টি দাখিল করেছেন সুপ্রিম কোর্টে। যদিও শুভেন্দু অধিকারীর দাখিল পিটিশনের শুনানি হয়নি সুপ্রিম কোর্ট। আদৌও সুপ্রিম কোর্ট বিজেপি বিধায়কের আবেদন টি মঞ্জুর করে কিনা তা পরবর্তীতে দেখা যাবে।তাছাড়া কলকাতা হাইকোর্ট থেকে অন্য রাজ্যের হাইকোর্টে কিংবা সুপ্রিম কোর্ট নিজেদের কাছে বিচারপ্রক্রিয়া চালু রাখে কিনা, তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে বেশ কয়েক দিন।বুধবারই কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি শম্পা সরকারের এজলাসে উঠেছিল নন্দীগ্রাম বিধানসভার পুন গননা চেয়ে মামলা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দাখিল করা এই মামলায় আজ বিচারপতি সব পক্ষদের নোটিশ জারি করেছেন। সেইসাথে নন্দীগ্রাম বিধানসভার নির্বাচনে ভোট সংক্রান্ত যাবতীয় নথি সংরক্ষণ করার জন্য নির্বাচন কমিশনের সিইও কে নির্দেশ দিয়েছেন। এই নির্দেশ জারির কয়েক ঘন্টার মধ্যেই সুপ্রিম কোর্টের দারস্থ হলেন এই মামলার বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী। তিনি এদিন সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন – ” কলকাতা হাইকোর্ট কে প্রভাবিত করার চেস্টা হচ্ছে।দেশের যেকোনো হাইকোর্টে এই মামলার শুনানি চলুক”। এহেন চাঞ্চল্যকর অভিযোগ এনেছেন শুভেন্দু অধিকারী। নন্দীগ্রাম মামলায় কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি কৌশিক চন্দ এর গেরুয়া যোগ নিয়ে সর্বভারতীয় রাজনৈতিক মহলের পাশাপাশি কলকাতা হাইকোর্টের এজলাসে শুনানিতে সরগরম করে ফেলেছিল তৃণমূল শিবির।তাতে একপ্রকার কলকাতা হাইকোর্ট নন্দীগ্রাম মামলায় এজলাস বদল করে থাকে। আজ নুতন এজলাসে এই মামলার প্রথম শুনানির কয়েক ঘন্টার মধ্যেই কলকাতা হাইকোর্ট কে প্রভাবিত করার চেস্টা হচ্ছে এই দাবি তুলে সুপ্রিম কোর্টের দারস্থ হলেন শুভেন্দু অধিকারী। দেশের অন্য কোন রাজ্যের হাইকোর্টে এই মামলার শুনানি চান তিনি।এখন দেখার সুপ্রিম কোর্ট বিজেপি বিধায়কের পিটিশন টির শুনানিতে কি জানায়? তবে ওয়াকিবহাল মহল মনে করছে – ‘ আগে নন্দীগ্রাম মামলায় এজলাস  বদলের ক্ষেত্রে বিচারপতি কে ঘিরে বিতর্ক ছিল, তাছাড়া মামলায় যে কোন পক্ষ আইনজীবীর মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট এজলাসের বদল চাইলে সাধারণত তা ঘটে’। তবে কলকাতা হাইকোর্ট বদলের আবেদন আদৌও সুপ্রিম কোর্টে টিকে  কিনা, তা নিয়ে সন্দিহান অনেকেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *