রাজনীতি

মঙ্গলকোটে তৃণমূলের জ্বালানি বিক্ষোভ প্রদর্শন কর্মসূচি

মঙ্গলকোট তৃণমূলের অবস্থান বিক্ষোভ

জ্যোতি প্রকাশ মুখার্জ্জী,

     আন্তর্জাতিক বাজারে মূল্য বৃদ্ধির দোহাই দিয়ে প্রায় প্রতিদিনই দেশের বাজারে বেড়ে চলেছে পেট্রোল-ডিজেলের দাম। ইতিমধ্যে বিভিন্ন রাজ্যে পেট্রোলের দাম সেঞ্চুরি অতিক্রম করেছে। ডিজেল সেঞ্চুরির দোড়গোড়ায় অপেক্ষা করছে। গ্যাসের দামও চার অঙ্ক ছুঁতে চলেছে। সবমিলিয়ে সাধারণ মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে। এই লাগামহীন মূল্য বৃদ্ধির বিরুদ্ধে  সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস ১০ ও ১১ ই জুলাই প্রতিবাদ জানানোর সিদ্ধান্ত নেয়।
      দলীয় নেতৃত্বের নির্দেশ মেনে  মঙ্গলকোট বিধানসভার বিধায়ক অপূর্ব চৌধুরীর নেতৃত্বে ১০ ই জুলাই মঙ্গলকোট তৃণমূল কংগ্রেস  নতুনহাট বাইপাস সংলগ্ন এ.কে.এম উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে অবস্থান বিক্ষোভে সামিল হয়। বিক্ষোভ সমাবেশে বিধায়ক ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ মুন্সি রেজাউল হক, জনস্বাস্থ্য কর্মাধ্যক্ষ মেহেবুব চৌধুরী, মঙ্গলকোট পঞ্চায়েতের উপপ্রধান  শান্ত সরকার, বিভিন্ন অঞ্চলের প্রধান ও অঞ্চল সভাপতি, বুথ সভাপতি সহ তৃণমূল কর্মীরা এবং 

আইটি সেলের কর্মী মোহাম্মদ আরিফ, হুমায়ুন কবীর ও শিল্পা ঘোষ। পরে বিক্ষোভ সমাবেশে যোগ দেন রায়না বিধানসভার বিধায়িকা তথা জেলা পরিষদের সভাধিপতি শম্পা ধারা ও বোলপুর লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ অসিত মাল। বিক্ষোভকারীদের হাতে ছিল বিভিন্ন ধরনের স্লোগান লেখা পোস্টার। বিধায়ক সহ প্রতিটি বক্তা জ্বালানি তেল ও গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকে দায়ী করে ক্ষোভে ফেটে পড়েন এবং অবিলম্বে দাম কমানোর দাবী তোলেন।
পরে মঙ্গলকোটের বিধায়ক বলেন – বাংলার মমতাময়ী মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জী বাংলার মানুষের স্বার্থে একের পর এক জনহিতকর প্রকল্প করে যাচ্ছেন। আর কেন্দ্রীয় সরকার ‘আচ্ছা দিনের’ স্বপ্ন দেখিয়ে সাধারণ মানুষের জীবন দুর্বিষহ করে তুলছে। আমরা এর বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানাই এবং অবিলম্বে জ্বালানি তেলের দাম কমানোর দাবী তুলছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *