হাইকোর্ট সংবাদ

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে রাজ্য কে টেট পরীক্ষা নিতে হবে

সুপ্রিম নির্দেশে রাজ্য কে টেট পরীক্ষা নিতে হবে

মোল্লা জসিমউদ্দিন টিপু

একাধারে যেমন আইনী জটিলতায় উচ্চপ্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া থমকে।মেধাতালিকা নিয়ে অধীর অপেক্ষায় লক্ষ লক্ষ পরীক্ষার্থী।ঠিক এইরকম পরিস্থিতিতে টেট নিয়ে সুখবর দিলো সুপ্রিম কোর্ট। সোমবার দুপুরে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি আব্দুর নাজির এবং বিচারপতি কৃষ্ণ মুরারির ডিভিশন বেঞ্চ রাজ্য সরকারের বোর্ড কে নির্দেশ দিলো নুতন করে টেট পরীক্ষা নেওয়ার।যারা ডিএলইডি প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত অথচ ২০২১ সালের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় বসতে পারেননি।তাদের কে ২০২২ সালের ৩১ মার্চের মধ্যে টেট পরীক্ষায় বসার সুযোগ করে দিতে হবে বলে সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দিয়েছে।এতে ৫০ থেকে ৬০ হাজার পরীক্ষার্থী উপকৃত হবে বলে আশাবাদী অনেকেই।নুতন করে টেট পরীক্ষা নিতে হবে বলে জানিয়েছে শীর্ষ আদালত। যারা ডিএলইডি ডিগ্রি টি ২০১৭ সালে শেষ করেছেন অথচ ২০১৭ সালের পরীক্ষায় বসতে পারেন নি।তাদের কে আগামী ২০২২ সালে ৩১ মার্চের মধ্যে টেট পরীক্ষা নেওয়ার প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে বলে রাজ্য সরকার কে নির্দেশ দিয়েছে শীর্ষ আদালত বলে জানিয়েছেন মামলাকারীদের আইনজীবী আলি আহসান আলমগীর। ২০১৭ সালের বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী ২০২১ সালে পরীক্ষা চলে।যা এনসিটিই মতে বেআইনী। প্রতিবছর নিয়োগ প্রক্রিয়া চালু রাখতে পরীক্ষা নেওয়াটা নিয়ম।এক্ষেত্রে তা মানা হয়নি বলে অভিযোগ। ২০২১ সালে টেট পরীক্ষায় বসেছিলেন আড়াই লক্ষের মত চাকরিপ্রার্থী। সোমবার সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দিল – যারা ২০১৭ সালে ডিএলইডি ডিগ্রি শেষ করেছে,তাদের কে ২০২২ সালের ৩১ শে মার্চের মধ্যে টেট পরীক্ষায় বসানোর সুযোগ দিতে হবে। এতে ৫০ থেকে ৬০ হাজার পরীক্ষার্থী উপকৃত হবে বলে জানা গেছে। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *