পুলিশ

বাঁশের আঘাতে মাথা ফাটলো বীরভূমের এক গ্রাম প্রধানের

খায়রুল আনাম,

 বাঁশের বাড়িতে মাথা  ফাটলো প্রধানের
     
বর্ষার মরশুম শুরু হতেই গ্রাম পঞ্চায়েত স্তরে একশো দিনের কাজের প্রকল্পে গ্রামের জলবাহি কাঁচা নালা সংস্কারের কাজ শুরু হয়েছে  বিভিন্ন জায়গায়। আর তা নিয়ে বিভিন্ন জায়গাতেই অল্প-বিস্তর অশান্তিও বাধছে।  সঠিকভাবে কাজ না দিয়ে পক্ষপাতিত্ব করে কাজ দেওয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ উঠছে। বিশেষ করে সংশ্লিষ্ট গ্রাম পঞ্চায়েতের  ক্ষমতা যে দলের হাতে রয়েছে, সেই দলের  যে সব কর্মীদের জবকার্ড  রয়েছে তাঁরাই কাজ পাচ্ছেন বলে  অভিযোগ উঠছে।        একশো দিনের কাজের প্রকল্পে বীরভূমের সিউড়ি-২ নম্বর ব্লকের কেন্দুয়া  গ্রাম পঞ্চায়েতের  কেন্দুয়া গ্রামে সোমবার ২৮ জুন সকালে কাঁচা নালা সংস্কারের কাজ শুরু হতেই তা নিয়ে মত পার্থক্য দেখা দেয়। গ্রামের  উত্তম লোহারের সঙ্গে  কাজের দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিদের বচসা বেধে যায়। প্রথমে সিভিক ভলান্টিয়াররা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়।  ঘটনার খবর পেয়ে কেন্দুয়া গ্রামে আসেন কেন্দুয়া গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান   নারায়ণ বাগ্দী। এরপরেই বচসা থেকে  পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠলে, সেই সময়ই বাঁশের বাড়ি মেরে গ্রাম পঞ্চায়েত  প্রধান  নারায়ণ বাগ্দীর মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয়। মুহূর্তে এলাকার পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে।  উভয় পক্ষই জড়িয়ে পড়ে সংঘর্ষে।  গ্রামে বেধে যায় ধুন্ধুমার কাণ্ড। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে গিয়ে পৌঁছয় সিউড়ি থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী।  পুলিশ ও সিভিক ভলান্টিয়াররা লাঠি নিয়ে তাড়া করে সরিয়ে দেয়  সকলকে।  আটক করে উত্তম হাজরা-সহ কয়েকজনকে।  আহত গ্রাম পঞ্চায়েত  প্রধান  নারায়ণ বাগ্দীকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে ।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *