ক্রীড়া সংস্কৃতি

হাজার রক্তদাতা কে পাশে পেল নবজ্যোতি সংঘ

হাজার দাতাকে পাশে পেল নবজ্যোতি সংঘ

সুবল সাহা

পিন্টু মাইতি

এক হাজার রক্তদাতার লক্ষ্যমাত্রা রেখে আলমবাজার নবজ্যোতি সংঘ যে বৃহৎ রক্তদান শিবিরের আয়োজন করেছিল ৯ আগস্ট তা পূর্ণমাত্রা পেল। এর আগে ৫ জুলাই প্রথম দফায় যে শিবির অনুষ্ঠিত হয়, সেখানে ৪৩৭ জন রক্তদান করেন। জুলাই মাস ব্যাপী চারটি রবিবারে তাদের সেই লক্ষ্যমাত্রা পূরণের কর্মসূচি ছিল। কিন্তু রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ক্লাব সংলগ্ন অঞ্চলটি কন্টেইনমেন্ট জোন ঘোষণা হওয়ায় ও সাপ্তাহিক লকডাউনের পরিপ্রেক্ষিতে পরপর তিনটি অনুষ্ঠান বাতিল করতে হয়।

বর্তমান পরিস্থিতিতে লকডাউন শিথিল হওয়ায় ক্লাবের পক্ষ থেকে শেষ দফার রক্তদান শিবিরে কাঙ্খিত রক্তদাতার সংখ্যা পূর্ণতা পায়। এদিনও প্রায় ৬০০ জন দাতা রক্তদান করেন। দুই দফা মিলিয়ে এক হাজার রক্তদাতার সংখ্যা পূর্ণ হওয়াতে সকলেই আনন্দিত।

তবে এদিন আনন্দ অনুষ্ঠানের মধ্যেও দেখা দেয় বিষাদের ছায়া। নবজ্যোতি সংঘের বিশিষ্ট শুভানুধ্যায়ী ও জননেতা গণপতি মজুমদারের অকাল প্রয়াণে শোকস্তব্ধ থাকে ক্লাব পরিসর। প্রয়াত মজুমদারের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য নিবেদন করেন ক্লাব সম্পাদক পুলক ঘোষ সহ সহ অন্যান্যরা। তাঁর সুযোগ্যা কন্যা রাইমা মজুমদারও উপস্থিত থেকে সংক্ষিপ্ত স্মৃতিচারণ করেন।

অন্যান্য অতিথিরা প্রয়াত গণপতি মজুমদার সম্পর্কে বলতে গিয়ে দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক জীবনে তাঁর অবদানের কথা উল্লেখ করেন। ষাটোর্ধ্ব বয়সেও গণপতি মজুমদার শেষ দিন পর্যন্ত দুর্গত মানুষদের পাশে দাঁড়িয়ে যেভাবে সমাজসেবা করে গেছেন, তা বরানগরবাসীদের কাছে চির উজ্জ্বল থাকবে বলে সকলে মন্তব্য করেন।

এদিন অতিথিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী তথা বরানগরের বিধায়ক তাপস রায়, বরানগর পৌরসভার বিদায়ী ভাইস চেয়ারম্যান জয়ন্ত রায়, বিদায়ী কাউন্সিলর পুষ্প রায়, কামারহাটি পৌরসভার বর্তমান প্রশাসনিক প্রধান গোপাল সাহা, বোর্ড সদস্য বিমল সাহা, তৃণমূল যুব নেতা অজয় গুপ্তা প্রমুখেরা। রাজ্য সরকারের স্বাস্থ্য দফতরের সহযোগিতায় দুটি আধুনিক মোবাইল ব্লাড কালেকশন ম্যান ও ক্লাব প্রাঙ্গণে রক্ত সংগ্রহ করার ব্যবস্থা করা হয়।

ক্লাব সম্পাদক পুলক ঘোষ বলেন, এক হাজার রক্তদাতার লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করতে পেরে তাঁরা খুশি। মানুষের কল্যাণে কাজ করতে গিয়ে বাধা পেরিয়ে সফল হতে জানে আলমবাজার নবজ্যোতি সংঘ। রক্তদাতার এই সংখ্যার ফলে তাঁরা যে বিশেষ কার্ড গ্রহণ করবেন, সেটা আগামী দিনে অন্যের রক্ত সংগ্রহে কাজে লাগবে। তিনি জানান, জুলাই মাসব্যাপী রক্তদানের কর্মসূচি এই এক হাজার লক্ষ্যমাত্রার সাথে সাথে সমাপ্তি ঘটল। এ জন্য তিনি সমস্ত দাতা ও সংশ্লিষ্ট সকলকে শুভেচ্ছা জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *