প্রশাসন

অভুক্তদের আহারের আয়োজনে হাজারদিন পার

গোপাল দেবনাথ,

এক অসাধারন অনুষ্ঠানের সাক্ষী ছিল আসানসোল নিবাসী। আরাডাঙ্গা দুর্গামন্দিরে এমন একটা অনুষ্ঠান উদযাপিত হলো যে ঘটনা রেকর্ড সৃষ্টি করেছে। একটু খোলসা করে বলা যাক। এই অনুষ্ঠানের উদ্যোক্তা অল ইন্ডিয়া হিউম্যান রাইটস। এক হাজার দিন!!! না, এটাকে কোনো সংখ্যার মাপকাঠিতে বিচার করলে খুবই ভুল হবে। সিনেমার দিনক্ষণ নয় অথবা ব্যাংকের ফিক্সড ডিপোজিট এর আমানত নয়। আমাদের সাধারণ ব্যাংক বা ব্ল্যাড ব্যাংক সম্পর্কে ধারণা থাকলেও এক হাজার দিন আগে ফুড ব্যাংক নিয়ে কোনো মানুষের ধারণা ছিল না। এই বিষয়ে সবার আগে যিনি উদ্যোগ নিয়েছিলেন তিনি হলেন অল ইন্ডিয়া হিউম্যান রাইটস এর প্রতিষ্ঠাতা ও সর্বভারতীয় চেয়ারম্যান বুম্বা মুখার্জী এবং সহযোগিতায় সংস্থার উদ্যমী সদস্যবৃন্দ।
এই সংস্হা টানা একহাজারদিন ধরে (কোনরকম বিরতি না দিয়ে ) রাস্তার নিরন্ন মানুষের মুখে অন্ন তুলে দিয়েছে।সাধারণ ভাবে আমরা একদিন কাউকে খাবার দিলে নিজেরা আত্মতৃপ্তিতে ভুগি এবং ভাবি বিরাট কিছু একটা করে ফেললাম। এক হাজার দিন মানে বুঝতেই পারা যাচ্ছে প্রায় তিন বছর ছুঁই ছুঁই। এই তিন বছরের মধ্যে গতবছর অর্থাৎ ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে কোভিড মহামারী রূপে আমাদের জীবনে থাবা বসিয়েছে যার প্রভাব এখনও কাটিয়ে ওঠা সম্ভবপর হয়নি। লক ডাউনে আমরা যারা সাধারণ মানুষ করোনা আতঙ্কে নিজেদের ঘরে বন্দী করে রেখেছিলাম। কিণ্তু ফুড ব্যাংকের সদস্যরা মৃত্যু ভয়কে উপেক্ষা করে প্রতিদিন রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে দুঃস্থ, নিরন্ন মানুষের মুখে খাবার পৌঁছে দিয়েছেন। এই সংস্থার উদ্যমী সদস্যদের ঝড়, বৃষ্টি, শীত, গরম কোন ঋতুই ওদের ঘর বন্দী করে রাখতে পারেনি। দুঃস্থ মানুষের মুখে প্রতিনিয়ত খাবার তুলে দেওয়া ছিল ওদের কাছে চ্যালেঞ্জ। গতকাল অর্থাৎ ২৪জুন ছিল একটি ঐতিহাসিক দিন, ফুড ব্যাংকের মাধ্যমে মানুষকে খাওয়ানোর এক হাজার দিন পূর্ণ করলো। এক হাজার দুঃস্থ মানুষকে এই সংস্থা পেট ভরে খাওয়ালেন। শুধু এক হাজার দিন উদযাপন করাই নয় সেই সাথে অল ইন্ডিয়া হিউম্যান রাইটস আরও একটি অপূর্ব সুন্দর এবং মহান কাজ করলেন। সম্প্রতি ইয়াস ঝড় আর এই কোভিড পরিস্থিতিতে আসানসোল, বার্নপুর, কুলটি এমনকি বর্ধমানের যে সব মানুষ একক ভাবে এবং ছোট, বড় সংস্থা যাঁরা করোনাকালীন সময়ে মানুষ এবং পশুর সেবা করে গেছেন তাঁদের সন্মান জানালেন অল ইন্ডিয়া হিউম্যান রাইটস।
আমাদের জানা নেই একসাথে এতো মানুষকে কোনো সংস্থা এক মঞ্চে সন্মান জানিয়েছেন কিনা। এত ভালোভাবে সমগ্ৰ অনুষ্ঠান সম্পন্ন জন্য কুর্নিশ জানাই অল ইন্ডিয়া হিউম্যান রাইটস কে। এ দিনের অনুুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অভিনেত্রী ও সুগায়িকা লাজবন্তী রায়, সংস্থার চেয়ারম্যান বুম্বা মুখার্জী,  অমিতাভ মুখার্জী, প্রবীর ধর, অসীম সরকার, জয়দীপ মুখার্জী, রাজন সিদ্দিকী সহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *