হাইকোর্ট সংবাদ

আজ শুভেন্দুর এফআইআর খারিজের শুনানি

 
মোল্লা জসিমউদ্দিন টিপু,

ইতিমধ্যেই একুশে বিধানসভা নির্বাচনে  বাংলায় বিজেপির ভোটপ্রচারক তথা অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তীর এফআইআর  খারিজের আবেদন বাতিল করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। তদন্তে সহযোগিতা করতে মিঠুন কে ভার্চুয়ালে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেয় হাইকোর্ট। ঠিক এইরকম পরিস্থিতিতে সোমবার কলকাতা হাইকোর্টে একই রকম আইনী ধাক্কা খেলেন বাংলার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তিনি তাঁর আইনজীবী মারফত কাঁথি পুরসভার ত্রিপল চুরির মামলায় অভিযুক্ত হিসাবে এফআইআর টি খারিজ করার  পাশাপাশি তদন্তে অন্তবর্তী স্থগিতাদেশ জারি চেয়েছিলেন। তবে কলকাতা হাইকোর্ট বিরোধী দলনেতার এই আবেদনে সাড়া দেয়নি।আদালত এই মামলার শুনানি রেখেছে ২২ জুন।উল্লেখ্য,  ইয়াস নামে প্রাকৃতিক দুর্যোগ পরবর্তী দুদিন পর কাঁথির পুরসভার গোডাউন থেকে ত্রিপল চুরি নিয়ে লিখিত অভিযোগ জমা পড়ে। সেখানে দুজন পুরসভার কর্মীর পাশাপাশি নাম জড়ায় বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী এবং তাঁর ভাই তথা কাঁথি পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান সৌমেন্দু অধিকারীর। কাঁথি পুরসভার গোডাউন থেকে রাতের অন্ধকারে ত্রিপল চুরি হয়েছে। তাতে এঁদের নাম জড়ায়।এই এফআইআর টি খারিজ করার জন্য এবং তদন্তে অন্তবর্তী স্থগিতাদেশ জারি চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দারস্থ হন  শুভেন্দু অধিকারী। গত সোমবার দুপুরে কলকাতা হাইকোর্টে এই মামলা উঠলে মামলাকারীর পিটিশন টি খারিজ করে দেয় আদালত। ২২ জুন এই মামলার শুনানি রয়েছে বলে জানা গেছে। বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন – ‘ ৯৫ সাল থেকে কাউন্সিলর, বিধায়ক, মন্ত্রী হয়েছি।লক্ষ্মণ শেঠের মত নেতাদের হারিয়ে সাংসদও হয়েছি একসময়। চলতি বিধানসভার ভোটে তৃণমূল নেত্রী কেও হারিয়েছি।তাই ত্রিপল চুরির মামলা দিয়ে শুভেন্দু অধিকারী কে রুখা অত সহজ নয়’। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *