প্রশাসন

গুসকারা শহর পরিস্কারে প্রশাসকমন্ডলী

জ্যোতিপ্রকাশ মুখার্জি,

    চিকিৎসার জন্য গুসকরা ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকার গরীব মানুষের একমাত্র ভরসাস্থল  গুসকরা প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র। নিয়মিত সংস্কারের অভাবে বর্ষার সময় স্বাস্থ্যকেন্দ্র চত্বর মাঝে মাঝে আগাছায় ভরে যায়। সাপ সহ নানারকম বিষাক্ত পোকামাকড়ের উপদ্রব বেড়ে যায়। সমস্যায় পড়ে রুগী ও তার আত্মীয়স্বজন সহ ডাক্তার ও স্বাস্থ্য কর্মীরা এবং কোয়ার্টারের বাসিন্দারা। এছাড়া পরিবেশ তথা দৃশ্য দূষণও ঘটে।     
 এবার সেই চত্বরকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার লক্ষ্যে সাত সকালেই গুসকরা পৌরসভার মনোনীত প্রশাসকমণ্ডলীর সদস্য কুশল মুখার্জ্জী ও পুরসভার সাফাই কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে স্হানীয় বিধায়ক অভেদানন্দ থান্ডার স্বাস্থ্যকেন্দ্রে উপস্থিত হন। গুসকরা পৌরসভার সক্রিয় সহযোগিতায় মিশন নির্মল বাংলা প্রকল্পের অধীনে শুরু হয় সাফাই অভিযান। বিধায়ক নিজ হাতে এই কর্মসূচির সূচনা করেন। হাত লাগান কুশল মুখার্জ্জী, জেলা যুব তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক দেবব্রত শ্যাম সহ অন্যান্যরা।   
 সেই সময় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে উপস্থিত ডাক্তার সহ স্বাস্থ্যকেন্দ্রের অন্যান্য কর্মীরা এবং রুগী ও তাদের আত্মীয় স্বজনেরা বিধায়কের এই উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং চত্বরটির যাতে নিয়মিত পরিচ্ছন্নতা বজায় থাকে সেদিকে লক্ষ্য রাখার জন্য আবেদন করেন।
      বিধায়ক বলেন - এলাকার গরীব মানুষ সহ ও অন্যান্যদের ভরসাস্থল এই স্বাস্থ্যকেন্দ্র। তিনি এটির উন্নতির জন্য আরও সক্রিয় হবেন। এই চত্বরটির নিয়মিত পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখার জন্য কুশলবাবুকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দেন।
       বিধায়কের পরামর্শ মেনে কুশলবাবু স্বাস্থ্যকেন্দ্রে সাফাই কর্মীদের নিয়মিত পাঠানোর ব্যাপারে কর্তৃপক্ষকে আশ্বাস দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *