সাহিত্য বার্তা

বনলতা – সুব্রত মিত্র,

বনলতা,
সুব্রত মিত্র,

এই শান্ত দুপুরে বনলতা নেই কাছে
কোন ইতিহাস লিখে যাবো দর্শকের কাছে,
পল্লীমঙ্গল আজও হয় কি চঞ্চল?
তোমার বে-খেয়ালি হাসিগুলো আছে তো অনর্গল?

তোমার গালের পাশে কালো তিলের সৌন্দর্য
বিগত দশকের মালায় দেখি জীবনের মাধুর্য,
তুমি যুবতী হয়ে ওঠো নি তখনও;
আমিও যুবক নই তখনও,

দিঘির জলে ছিল তোমার মুখের ছবি
আমি ভাবি নি তখনো তোমার কথা ভেবে ভেবে আমিই হব কবি,
ঝড় ওঠার কথা ছিল ওঠেনি তো ঝড়,
ভাঙার কথা ছিল ভাঙেনি তো ঘর।

কল্পনারা আমাকে ভাবায় নি
চেনা পথটাকে আর আমাকে চেনায় নি,
পল্লীর গায়ে তোমার ছায়া পড়ে আজও বনলতা
তুমি কখনো জানোনি, তুমি কখনও বোঝনি, এ মনের ব্যাকুলতা।

আজ এসব জানলে সমাজ আমায় চরিত্রহীনা বলবে।

তুমি শীর্ষের সাথে আজ করমর্দন করে বেড়াও দুবেলা
প্রেম নিবেদনের অবশিষ্ট ভাষা
যদি কিছু থাকে সময়ের ইতিহাস বলে দেবে তা।

এখনো মুহূর্তেরা তাকায় তোমার ঠিকানায়
আমি বিধ্বংসী ধূমকেতুর নিভে যাওয়া মায়া হয়ে তখনো ডাকবো তোমায়।
জানি, তুমি ভালোবাসো নি আমায়
এক প্রকট নির্লজ্জের মত আমার মন আজও তোমাকেই চায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *