প্রশাসন

কোলাঘাটে শ্মশান নির্মাণ ঘিরে কোলাহল

জুলফিকার আলি

করোনা আক্রান্ত রোগীদের দাহ করার জন্য শ্মশানে তৈরীর আগেই বাঁধা গ্রামবাসীর।

করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়ে মৃত ব্যক্তিকে সৎকার করার জন্য কোলাঘাট ব্লক প্রশাসন কলিশ্বর ,বলিশ্বর, দেহাটি ও ধুলিয়ারা সংযোগস্থলে ফাঁকা নির্জন এলাকায় একটু শ্মশান নির্মাণ করবে বলে মনস্থির করেছেন। কিন্তু কাজ শুরুর আগেই কলিশ্বর বলিশ্বর দেহাটি ধুলিয়ারা, গ্রামবাসীরা বিক্ষোভে ফেটে পড়েন। গ্রামবাসীদের মূলত অভিযোগ সরকার মনস্থির করা শ্মশানের জায়গার ওপর দিয়েই চাষবাস করতে যায় গ্রামের সাধারণ মানুষ। এবং শ্মশানের 100 মিটার এর মধ্যেই এই চার গ্রামের যাতায়াতের মূল রাস্তা। এবং কিছুটা দূরেই আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষদের বসবাস। সরকারি আধিকারিক আমাদের সাথে কোন আলোচনা না করেই সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে করোনা আক্রান্ত মৃতদেহ রোগীদের দাহ করা হবে। অবিলম্বে এই শ্মশান সরাতে হবে নচেত আমরা বৃহত্তর আন্দোলনে যাব বলে চার গ্রামের প্রায় 200 জন গ্রামবাসীকে নিয়ে সাফ জানিয়ে দেন গ্রামবাসীরা। যদিও কোলাঘাট ব্লকের ভিডিও মদন মন্ডল জানান যে আমরা সরকারি সমস্ত বিধি নির্দেশ মেনে ওখানে শ্মশান করাবার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। যেখানে শ্মশান করার মনস্থির করেছি আমরা তার আশপাশে কোন জনবসতি নেই। ওই শ্মশান করার জন্য আমরা ইতিমধ্যেই তিনটি সর্বদলীয় বৈঠক করেছি। আজকেও তমলুক এসডিপিও নেতৃত্বে গ্রামবাসীসহ সর্বদলীয় বৈঠক আমরা ডেকেছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *