ক্রীড়া সংস্কৃতি

আসছে শারদীয়া, করোনায় মন খারাপ মঙ্গলকোটের

জ্যোতিপ্রকাশ মুখার্জি


একদিকে রাজ্যে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে ( অবশ্য সুস্থতার হারও বৃদ্ধি পাচ্ছে ) অন্যদিকে দ্রুত এগিয়ে আসছে বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গোৎসব। মাত্র ৭৫ দিনের মত দেরি। গত মার্চ মাস থেকে সরকার বাধ্য হয়ে একের পর এক পারিবারিক, সামাজিক বা ধর্মীয় উৎসব নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে। এই পরিস্থিতিতে শেষ পর্যন্ত দুর্গা পুজো হবে কিনা এবং হলেও জমজমাট পূর্ণ হবে কিনা তা নিয়ে বাঙালিদের মনে বিপুল সংশয়। তাবলে প্রস্তুতি তো থেমে থাকতে পারেনা। সংশয় ও করোনা আতঙ্ককে সঙ্গী করেই অনেক জায়গায় পারিবারিক পুজোর মূর্তি তৈরি হতে শুরু করেছে।
পশ্চিম মঙ্গলকোটের চাণকের স্যাকরা পাড়ার ‘শী’ পরিবারের পুজো চারশ বছরের বেশি পুরনো। পুজো চারদিন আত্মীয় স্বজনদের ভিড়ে বাড়ি গিজগিজ করে। অথচ এবারে অজানা আতঙ্ক অন্যান্যদের মত ‘শী’ পরিবারকেও গ্রাস করেছে। তার মাঝেও মূর্তি তৈরির কাজ চলছে।
পরিবারের অন্যতম সদস্য রবীন্দ্রনাথ শী বললেন – আতঙ্ক তো আছেই। বংশ পরম্পরায় চলে আসা পুজোতো বন্ধ করতে পারিনা। বিধিনিষেধ না উঠলে শুধুমাত্র পুজো টুকুই করব। আশাকরি মায়ের কৃপায় পৃথিবীর বুক থেকে করোনা আতঙ্ক দূর হবে। সবাই আবার আনন্দে মেতে উঠবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *