প্রশাসন

দুবরাজপুর পুরসভায় বসলো প্রশাসক মন্ডলী

খায়রুল আনাম (সম্পাদক – সাপ্তাহিক বীরভূমের কথা)


করোনা আবহ  জনিত পরিস্থিতিতে থমকে গিয়েছে প্রশাসনিক স্তরের বিভিন্ন ধরনের স্বাভাবিক কাজকর্ম। আর তারই পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্যের মেয়াদ উত্তীর্ণ যে সব পুরসভাগুলির  চলতি বছরের বিগত মে মাসে  ভোট  হবার কথা ছিলো, তাও স্থগিত হয়ে যায়।   বীরভূম জেলায় যে  মোট ছয়টি পুরসভা রয়েছে, তারমধ্যে নলহাটি পুরসভাকে বাদ দিয়ে বোলপুর, সিউড়ি, সাঁঁইথিয়া, রামপুরহাট ও দুবরাজপুর-এই   পাঁঁচটি পুরসভায় পুরভোট হওয়ার কথা ছিলো চলতি বছরের মে মাসে। কিন্তু করোনা  জনিত পরিস্থিতিতে সেই ভোট করা সম্ভব নয় বলে জানিয়ে দেয় রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর। জেলার দুবরাজপুর পুরসভাকে বাদ দিয়ে বাকি চারটি পুরসভার পুর বোর্ডের মেয়াদ শেষ হওয়ার সাথে সাথেই সেখানে বিদায়ী পুর বোর্ডের বিদায়ি চেয়ারম্যানদের   চেয়ারপার্সন করে  তিন সদস্যের পুর বোর্ডের হাতে দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয়। কিন্তু এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম ঘটে দুবরাজপুর পুরসভার ক্ষেত্রে।            জেলার সিউড়ি সদর মহকুমার দুবরাজপুর পুর বোর্ডের মেয়াদ শেষ হয় ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসের প্রথমেই।  তারপরই  ৯  সেপ্টেম্বর থেকে দুবরাজপুর  পুরসভার প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়  সিউড়ি সদর মহকুমা শাসককে। সেই থেকেই তিনি প্রশাসক পদের দায়িত্ব সামলে আসছিলেন। এনিয়ে দুবরাজপুর পুর এলাকার নাগরিকদের নানাবিধ অসুবিধার সম্মুখীন হতে হচ্ছে বলে বার বার অভিযোগ  ওঠে। রাজ্য পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর কেন দুবরাজপুর পুরসভার নির্বাচন না  করিয়ে প্রশাসক বসিয়ে রেখেছেন, সেই প্রশ্নও তোলা হয় বিভিন্ন মহল থেকে।  এই পরিস্থিতিতে রাজ্য পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর সিদ্ধান্ত নেয় যে,  মেয়াদ উত্তীর্ণ অন্য পুরসভাগুলির সাথেই  মে মাসে দুবরাজপুর পুরসভারও ভোট করা হবে। সেই মতো প্রশাসনিক এবং রাজনৈতিক দিক থেকেও পুর ভোটের প্রস্তুতি শুরু হয়ে যায়।  কিন্তু করোনা পরিস্থিতির জন্য অন্যান্য অনেক ক্ষেত্রের  মতোই পুর ভোটও স্থগিত হয়ে যায়।          এই পরিস্থিতিতেই করোনা সংক্রমণের  কারণে প্রশাসনিক নানা গুরুত্বপূর্ণ কাজে সদর মহকুমা শাসককে ব্যস্ত থাকতে হচ্ছে। তাই তাঁর পক্ষে অতিরিক্তভাবে দুবরাজপুর পুরসভার প্রশাসক পদের দায়িত্ব সামলানো যথেষ্ট অসুবিধাজনক হয়ে যাচ্ছে বলে জেলাশাসক মৌমিতা গোদারা বসু বিষয়টির প্রতি রাজ্য পুর ও নগরোন্নয়ন দফতরের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। এরপরই  মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়া অন্যান্য  পুরসভার মতো দুবরাজপুর পুরসভার মাথায় বিদায়ী পুর  বোর্ডের চেয়ারম্যানকে  প্রশাসক বোর্ডে বসিয়ে পুর-পরিষেবা সচল রাখার সিদ্ধান্তের কথা ৩১ জুলাইরাজ্য পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর থেকে  জানিয়ে দেওয়া হয়। আর তারই পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার  ৪ আগস্ট দুবরাজপুর পুরসভার  চেয়ারপার্সন হিসেবে দায়িত্ব নিলেন বিদায়ী পুর বোর্ডের চেয়ারম্যান পীযূষ পাণ্ডে। এই প্রশাসক বোর্ডের  অপর দুই সদস্য হিসেবে দায়িত্ব নিলেন  বিদায়ী পুর বোর্ডের  অন্য দুই কাউন্সিলার  সরস্বতী মাজি ও মির্জা সওকত আলি।   প্রশাসক বোর্ডের চেয়ারপার্সন হিসেবে দায়িত্ব নিয়ে  পীযূষ পাণ্ডে জানিয়েছেন, পুর নাগরিকেরা যাতে সঠিকভাবে পুর পরিষেবা পান, সে দিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখা হবে ।। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *