সিবিআইয়ের জোড়া তলব এড়ালেন ‘অসুস্থ’ অনুব্রত, কি ভাবছে সিবিআই? 

মোল্লা জসিমউদ্দিন ,
বীরভূমের দাপুটে নেতা অনুব্রত মন্ডলের রাহু দশা যেন ঘুচছে না।এসএসকেএম থেকে গত শুক্রবার বাড়িতে চার সপ্তাহের  বেডরেস্ট মিললেও রেহাই নেই সিবিআই তলবের। একদিনের মধ্যেই দু দুটি মামলায় তলব।গরু পাচার মামলার পাশাপাশি ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় তলব।দুটি তলবের সময়সীমা সিবিআই  বেঁধে দিলেও যাননি অনুব্রত।গরু পাচার মামলায় গত শনিবার সিবিআই হাজিরা এড়িয়েছিলেন অনুব্রত মণ্ডল। এবার ভোট পরবর্তী হিংসা মামলাতেও রবিবার  সিজিও কমপ্লেক্সে যাননি না এই তৃণমূল নেতা ইতিমধ্যেই  অনুব্রতর  আইনজীবী চিঠি দিয়ে সিবিআইকে জানিয়েছে, -‘ অসুস্থতার কারণেই রবিবার  হাজিরা দিতে পারবেন না তৃণমূল নেতা’।তবে সিবিআই চাইলে অনুব্রতের  চিনার পার্কের বাড়িতে এসে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারে। অনুব্রতর জন্য ইতিমধ্যেই প্রশ্নপত্র তৈরি করে ফেলেছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই । তবে তাদের কোনও প্রতিনিধি অনুব্রতর বাড়িতে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন কি না, তা এখনও জানা যায়নি।গত শনিবার  ষষ্ঠবার সিবিআই  হাজিরা এড়িয়েছেন বীরভূমের দাপুটে  নেতা অনুব্রত মণ্ডল। গরু পাচার মামলার তদন্তে শনিবার বিকেল সাড়ে পাঁচটার মধ্যে নিজাম প্যালেসে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ পেয়েও তিনি যেতে পারেননি। যাননি তাঁর আইনজীবীও। গরু পাচার মামলা ছাড়াও ভোট পরবর্তী সন্ত্রাস মামলায় অনুব্রতকে তলব করা হয়।রবিবার দুপুর আড়াইটেয় সিজিও কমপ্লেক্সে হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হয় সিবিআইয়ের তরফে ।তবে অনুব্রত যাননি।এই মুহূর্তে তাঁর  যা শারীরিক অবস্থা, তাতে হাজিরা দেওয়া সম্ভব নয় বলে ই-মেল মারফত সিবিআইকে জানান বীরভূমের তৃণমূল সভাপতি নিজেই। সিবিআই এর কাছে চেয়ে নেন চার সপ্তাহের সময়। গত ৬ এপ্রিল গরু পাচার মামলায় হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল অনুব্রত মন্ডলের। তবে কলকাতায় আসার পথে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি  হন অনুব্রত । একাধিক শারীরিক সমস্যা নিয়ে টানা ১৭ দিন চিকিত্‍সাধীন ছিলেন হাসপাতালে । কিছুটা সুস্থ হওয়ার পর গত শুক্রবার সন্ধেবেলা হাসপাতাল থেকে ছাড়া পান।কলকাতার  চিনার পার্কের ফ্ল্যাটে ফেরেন তিনি । এসএসকেএমের চিকিত্‍সকরা চার সপ্তাহ বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দেন তাঁকে। তবে গত শনিবারই তাঁকে ফের জোড়া মামলায় তলব করে সিবিআই।  শারীরিক অসুস্থতার কারণে তিনি যাননি সিবিআই অফিসে।  বিরোধীদের দাবি, -‘ অসুস্থতার অজুহাতে সিবিআইয়ের তলব এড়াচ্ছেন অনুব্রত’। যদিও  ফৌজদারি বিশেষজ্ঞ আইনজীবীদের মতে – এই ধরনের তলব যত এড়াবেন, ততই আইনী বিপাকে পড়বেন অনুব্রত মন্ডল।  এখন দেখার সিবিআই কি করে ‘অসুস্থ’ অনুব্রত মন্ডল কে নিয়ে! 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *