মন্দিরের চুরির সামগ্রী উদ্ধার করলো মঙ্গলকোট পুলিশ 

সম্প্রীতি মোল্লা, মঙ্গলকোট,

অবশেষে চুরির কিনারা করলো পূর্ব বর্ধমান জেলার মঙ্গলকোট থানার পুলিশ।  কোগ্রামের লোচনদাস মন্দিরে চুরি যাওয়া বেশ কিছু সামগ্রী উদ্ধার করেছে স্থানীয় থানার  পুলিশ ।মঙ্গলকোট থানার আইসি পিন্টু মুখার্জি জানান , -” উদ্ধার হওয়া সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে পিতলের তৈরি একটি বড় গামলা এবং বেশ কিছু থালা ও ​​বালতি ।এছাড়া পিতলের তৈরি দুটি গোপাল মূর্তি, একটি পিতলের সিংহাসন এবং কাঁসা পিতলের অন্যান্য পূজার সামগ্রীসহ একটি সোনার চেইন ও রুপোর অলঙ্কার উদ্ধার” ।উল্লেখ্য, গত ১৬ সেপ্টেম্বর রাতে মঙ্গলকোটের কোগ্রামের লোচনদাস মন্দিরে চুরির ঘটনা ঘটে । চুরির পরের দিন মন্দিরের এক সেবাইত প্রসাদ ঘোষ এনিয়ে মঙ্গলকোট থানার পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন । অভিযোগকারী নিজেই এক ‘বহিরাগত’ ব্যক্তির প্রতি সন্দেহপ্রকাশ করে পুলিশকে জানান । তখন তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে ধনগোপাল দাস নামে বীরভূমের রামপুরহাটের উদয়পুর গ্রামের বাসিন্দা এক বৃদ্ধকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ । ধৃতকে জেরা করে মঙ্গলকোট পুলিশ কাটোয়ার শ্রীখণ্ড হাটতলার বাসিন্দা নন্দন নাথের নাম জানতে পারে । এরপর গত ২২ নভেম্বর রাতে নিগন বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়  বলে পুলিশি সুত্রে প্রকাশ ।পুলিশ সুত্রে জানা গেছে,ধৃতকে কাটোয়ার এসিজেএম আদালতে তুলে নিজেদের হেফাজতে চেয়ে আবেদন জানালে ভারপ্রাপ্ত বিচারক ২ দিনের হেফাজত মঞ্জুর করে থাকেন । এরপর তাকে জেরা করতেই চুরি যাওয়া সামগ্রী উদ্ধার হয় । শুধু তাই নয়,পুলিশের জেরায় ধৃত দুষ্কৃতী  জানিয়েছে -‘ মঙ্গলকোট ছাড়াও ইতিপূর্বে সে ভাতার ও কাটোয়া এলাকার একাধিক মন্দিরে চুরি করেছে’ । চুরি যাওয়া সামগ্রী সে কোথায় বিক্রি করত এবং এই চক্রে আর কেউ যুক্ত আছে কিনা তা জানার চেষ্টা চালাচ্ছে মঙ্গলকোট থানার পুলিশ ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *