সাধন মন্ডল,

১ লা জুন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাঁকুড়ার কর্মীসভায় যাওয়ার পথে অসুস্থ হয়ে বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর রাত্রিতে মৃত্যু হয় রায়পুর ব্লকের সোনাগাড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের ঢেঙ্গাআম গ্রামের বাসিন্দা পতন সরেন (53) তার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে । তৃণমূল কংগ্রেস একজন সক্রিয় সদস্য কে হারালো বলে জানালেন রায়পুর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি জগবন্ধু মাহাত ।দলীয় নির্দেশে তৃণমূলের জেলা স্তরের নেতৃত্ব তার বাড়িতে উপস্থিত হয়ে তার পরিবারকে সমবেদনা জানিয়েছেন ও কিছু আর্থিক সাহায্য তার পরিবারের হাতে তুলে দিয়েছেন সকালে সেই দলে উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক মৃত্যুঞ্জয় মুর্মু ,জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি দিব্যেন্দু সিংহ মহাপাত্র, ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি জগবন্ধু মাহাতো প্রমুখ।সন্ধ্যায় তার বাড়িতে হাজির হন তালডাংরা বিধানসভার বিধায়ক অরূপ চক্রবর্তী তিনি পতন সরেন এর স্ত্রী সুলেখা সরেন কে সমবেদনা জানিয়ে বলেন দল তার পাশে রয়েছেন ।আমি মন্ত্রী মলয় ঘটকের নির্দেশেই আপনার সাথে দেখা করতে এসেছি আপনার পরিবারের যাতে কোন অসুবিধা না হয় সেজন্য দল সবসময় সহযোগিতা করবে। দুশ্চিন্তার কোন কারণ নেই। সন্ধ্যায় অরূপ চক্রবর্তীর সাথে উপস্থিত ছিলেন রায়পুর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি জগবন্ধু মাহাতো ,বিশিষ্ট সমাজসেবী গণেশ মাহাতো ,রায়পুর গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান জয়দেব দুলে, সোনাগাড়া অঞ্চলের তৃণমূল নেতৃত্ব, বিশিষ্ট শিক্ষক ও সমাজসেবী ষষ্ঠী চরণ হালদার প্রমূখ। উল্লেখ্য পতন সরেন বাড়ির একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি ছিলেন বর্তমানে তার স্ত্রী ছাড়াও এক পুত্র ও এক কন্যা রয়েছেন তারা অষ্টম শ্রেণি ও পঞ্চম শ্রেণীতে পড়াশুনা করে ।অরুপ বাবুর কাছে তার স্ত্রী সুলেখা সরেন এর কাতর প্রার্থনা তাকে যেন একটি কোন কাজের ব্যবস্থা করে দেওয়া হয় তা না হলে সংসারটি ভেসে যাবে ।অরুপ বাবু আশ্বাস দিয়ে বলেন দল বিষয়টি নিয়ে চিন্তাভাবনা করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *