পুলিশি নিরাপত্তা প্রদানে ওসির নজরানা দাবি ৫ লাখ! পুলিশকমিশনারের বক্তব্য তলব,

মোল্লা জসিমউদ্দিন

কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে মামলাকারী কে পুলিশি নিরাপত্তা প্রদান। তবে তাতে নাকি ওসির ব্যক্তিগত ঘুষের দাবি ৫ লাখ টাকার! হ্যাঁ, এইরকম অভিযোগ নিয়ে পুনরায় আদালতের দারস্থ ওই মামলাকারী। কলকাতা পুলিশের আওতাধীন হরিদেবপুর থানার পুলিশ ওসির বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ উঠল। কলকাতা হাইকোর্টে দীর্ঘদিন ধরে চলছিল জমি সংক্রান্ত মামলা। গত ২৮ শে ফেব্রুয়ারি এই মামলায় মামলাকারীকে পুলিসি নিরাপত্তা দিয়েছিল হাইকোর্ট।হাইকোর্টের বিচারপতি রাজাশেখর মান্থার নির্দেশ ছিল পুলিশি  নিরাপত্তা দেওয়ার ।তবে বলা হয়েছিল তিনি নিজেই সেই খরচ বহন করবে। দুইমাস পর হাতে এসেছে নিরাপত্তার খরচের বিল। সেখানে টাকার পরিমান লেখা রয়েছে প্রায় ১২ লক্ষ টাকা। এই বিল দেখেই মামলাকারীর মাথা ঘুরে যাওয়ার উপক্রম । কিভাবে  এই বিপুল অর্থ মেটাবেন  তা বুঝে উঠতে পারছেন না। পুরো বিষয়টি নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন তিনি। এরপরই এই মামলায় কলকাতার পুলিশ কমিশনারের কাছে হলফনামা তলব করল কলকাতা হাইকোর্ট। অভিযোগ রয়েছে ,দুই মাসে নিরাপত্তার জন্য মামলাকারীর কাছে থানার তরফে চাওয়া হয়েছিল ১২ লক্ষ ৩৬ হাজার ৭৬০ টাকা।তবে  হরিদেবপুর থানার ওসি আরও ৫ লক্ষ টাকা ঘুষ চেয়েছিলেন বলে দাবি মামলাকারীর ।এর প্রেক্ষিতে গত সপ্তাহে আদালত অবমাননার অভিযোগে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন মামলকারী। তাঁর অভিযোগ শুনে বিস্ময় প্রকাশ করে থাকে আদালত । মামলার পরবর্তী শুনানিতে থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিককে আদালতে হাজির হয়ে নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি মান্থার। তাছাড়া হলফনামা দেওয়ারও নির্দেশ দিয়েছেন। এই মামলার পরবর্তী শুনানি রয়েছে আগামী  ১৭ জুন।পাশাপাশি চাওয়া হয়েছে পুলিশ কমিশনারের বক্তব্য। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *