চাঁদের ছায়াও চাঁদের আলোর মতো সমানভাবে টানে

আগে হাইকোর্ট ক‍্যালেন্ডারে ঈদের ছুটি ঘোষণা করা হতো ওই তারিখের নীচে লাল কালির দাগ টেনে । এখন থাকে না কারণ অনেক সময় ঈদের দিন পরিবর্তন হয় চাঁদের আলো দেখার উপর নির্ভর করে , যদিও চাঁদের কোন নিজস্ব আলো নেই । সূর্যের আলোয় সে কেবল আলোকিত । সূর্যের চারদিকে অন‍্যান‍্য গ্ৰহের সঙ্গে সেও মালার মতো অনন্তকাল ঘুরছে । তাই কখন দেখা যায়, কখন দেখা যায় না ।
গতকাল অফিস ছুটির পরও জানতে পারছি না ৩ ই মে ছুটি হবে কি না । অনেককে জিজ্ঞেস করেও জানা যায় না । এমন বিড়ম্বনা দূর করার জন‍্যে হাইকোর্ট কর্তৃপক্ষের দরকার হাইকোর্টে একজন ইমাম রাখা ,যে চাঁদের আলো দেখে হাইকোর্ট কর্তৃপক্ষকে কনভে করতে পারে ।

হিন্দু ,মুসলিম সবার নির্বিশেষে চাঁদের আলোর উপর দুর্নিবার টান আছে । পূর্ণিমার চাঁদ বলে কথা ! চাঁদ কত সুন্দর, কত উপমা ! ‘আয় আয় চাঁদ মামা ,আমার চাঁদের কপালে চাঁদ টিপ দিয়ে যা’ । চাঁদ টিপের মতো সুন্দর দেখতে বলে শিশুর কপালে ওই চাঁদ টিপ হলে সুন্দর মানায় । পৃথিবীর মায়েরা তাদের সন্তানদের কোলে নিয়ে এমন ভাবে ডাকে। আবার প্রেমিক চায় চন্দ্রমুখী প্রেমিকা । চাঁদের মতো সুন্দর মুখ হোক তার প্রেমিকা । চন্দ্রমুখী আলুর সঙ্গে তুলনা করলেই সর্বনাশ ,যদিও চন্দ্রমুখী আলুর দাম বেশী । এখানে প্রেমের ব‍্যাকরণ মানতেই হয় ,কোনো ছাড় নয় । এই ভাবে চাঁদ কখনো শিশুর কপালের টিপ হয় ,প্রেমিকার সুন্দরী মুখ হয় । কিন্ত চাঁদ মামা হয় কেন ! মায়ের ভাই ,বাবার শালা হচ্ছে মামা । সে তো শুধু আমার মামা নয়, আমার বাবারও মামা । আমার চোদ্দগুষ্টির মামা । সে পৃথিবীর সকলের মামা । ইউনিভারস‍্যাল মামা ‌। শুকতারা থাকলেও সে কিন্তু চাঁদমামা হয়ে থেকেই যায় । এ হচ্ছে চাঁদের মাহিমা । যদি চন্দ্রকলা বাদ যায় জুড়ে দিলে বেশ হয় ।
চাঁদের আলো দেখে শুভ ঈদের উপোষ শুরু হয় । আবার চাঁদের আলো দেখে উপোষ ভেঙ্গে শুভ ঈদ উৎসব পালিত হয় ‌। এদিন আলোর উৎসবে উৎসবমুখী হয়ে ওঠে । এ হচ্ছে চন্দ্রালোকের নান্দনিক খেলা । আবার চাঁদ অন্ধকার হলে চন্দ্র গ্ৰহণ হয় । অনেকে উপোষ করে বিপদ মুক্ত হতে ।

আর্চায‍ প্রফুল্ল চন্দ্র রায় ক্লাসে ছাত্র, ছাত্রীদের কত করে বোঝান চন্দ্র গ্ৰহণ নিয়ে । তারা খুব মন দিয়ে শোনেন । অনেকে পরীক্ষায় পাতায় চন্দ্র গ্ৰহনণের কারণ লিখে ১০ মধ‍্যে ১০ পান ‌। কিন্তু অন‍্যদের মতো তারাও চাঁদের আলোর মতো চাঁদের ছায়া থেকে বের হতে পারে না । চাঁদের ছায়াও চাঁদের আলোর মতো সমানভাবে টানে । সূর্যের টানে চাঁদ ঘোরে আর চাঁদের টানে আমরা ঘুরি । চাঁদের মতো আমাদেরও মুক্তি নেই । সেই কবে বিজ্ঞান আর ধর্মের যুদ্ধ লেগে ছিল লেগেই আছে ,কেউ মেটাতে পারে না ‌।
সুবল সরদার
মগরাহাট
দক্ষিণ ২৪ পরগণা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *